প্রাণিজগতের জন্য নির্মল প্রকৃতি অত্যন্ত জরুরি | অন্বেষণ | DW | 22.12.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

প্রাণিজগতের জন্য নির্মল প্রকৃতি অত্যন্ত জরুরি

পানি পরিষ্কার না হলে ইকোসিস্টেম ঠিকমতো বেড়ে উঠতে পারে না৷ উদ্ভিদ ও প্রাণী এমন পরিবেশে নির্বিঘ্নে বংশবৃদ্ধি করতে পারে৷ তবে মানুষের কার্যকলাপের ফলে পরিবেশের উপর চাপ বাড়ছে৷

ক্ষতিকারক পদার্থগুলির কারণে শুধু বুনো গাছপালা ও প্রাণীরই ক্ষতি হয় না, আমাদের পানীয় জলের উপরেও তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে৷

ক্ষতিকারক পদার্থগুলির কারণে শুধু বুনো গাছপালা ও প্রাণীরই ক্ষতি হয় না, আমাদের পানীয় জলের উপরেও তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে৷

কৃষিকাজের কারণে মাটির নীচে যা তলিয়ে যায়, সেগুলি অন্য কোথাও মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে৷ এর পরিণতি হিসেবে জীবজগতের বাকি সব সদস্যদের পেছনে ফেলে পুষ্টিভরা পানির মধ্যে বিশাল পরিমাণ অ্যালজি বা জলজ উদ্ভিদ গজিয়ে ওঠে৷ তাছাড়া ক্ষতিকারক পদার্থগুলির কারণে শুধু বুনো গাছপালা ও প্রাণীরই ক্ষতি হয় না, আমাদের পানীয় জলের উপরেও তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে৷

জার্মানির প্রায় এক তৃতীয়াংশ ভূখণ্ডেই ভূগর্ভস্ত পানিতে অতিরিক্ত মাত্রার নাইট্রেট মিশে গেছে৷ সেই পানি ধীরে ধীরে উপত্যকায় নেমে আসে৷ এমন পানি মাটির নীচের নদীর প্রবাহের বায়োটোপ সুরক্ষিত রাখার বদলে উলটে হুমকি হয়ে ওঠে৷

যেখানে ভূগর্ভস্থ পানি এখনো পরিষ্কার রয়েছে, সেখানকার জলাভূমি অসংখ্য উদ্ভিদ ও প্রাণীতে সমৃদ্ধ হয়ে ওঠে৷ যেমন প্রাকৃতিক হ্রদ ও জলজ উদ্ভিদের সমারোহ, নদীর প্রান্তের অরণ্য – এমনকি কৃত্রিম হ্রদ৷ নুড়িপাথরভরা খাদেও ভূগর্ভস্থ পানি ভরা থাকলে সেখানে আবার প্রাণের সঞ্চার ঘটে৷

যে সব মাছ উদ্ভিদের মধ্যে লুকিয়ে থাকে, সেগুলি আসলে মারাত্মক ফাঁদে ফেঁসে যায়৷ মাত্র কয়েক মিটার দূরে পরিষ্কার ভূগর্ভস্থ পানিতে উদ্ভিদের চারিদিকে অনেক পোকামাকড় উড়ে বেড়ায়৷ ফড়িংয়ের মতো অনেক প্রাণী স্বাস্থ্যকর পানি ছাড়া বংশবৃদ্ধি করতে পারে না৷

পরিষ্কার ভূগর্ভস্থ পানি না থাকলে এমন দৃশ্য দেখা যেত না৷ সে কারণেই এমন পরিবেশের সুরক্ষা নিশ্চিত করা আরও জরুরি৷ শুধু দৃশ্যমান অংশই নয়, মাটির নীচেও সেই পানি অক্ষত রাখার চেষ্টা করতে হবে৷

স্যার্জ দুমঁ/এসবি

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন