প্রস্তুত স্পেন-নেদারল্যান্ডস | খেলাধুলা | DW | 11.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

প্রস্তুত স্পেন-নেদারল্যান্ডস

চার বছর ধরে অপেক্ষা৷ তারপর শুরু ফুটবল প্রেমীদের প্রিয় আসর বিশ্বকাপ৷ এরপর নানা ঘটন-অঘটন, চোখের জল, বুকের চাপা কান্না.. সব শেষ হচ্ছে আর কয়েক ঘণ্টা পরেই৷ ফিফা ওর্য়াল্ডকাপের ফাইনাল৷ কে হবেন এবারের চাম্পিয়ন?

World Cup, Spain, Nederlands, ফুটবল, Football, সকার সিটি

শেষ হতে যাচ্ছে ফুটবল প্রেমীদের উচ্ছাস

জোহানেসবার্গের সকার সিটি স্টেডিয়ামে স্পেন-নেদারল্যান্ডস ফাইনাল ম্যাচের পরই বিশ্ব পাবে নতুন চ্যাম্পিয়ন৷ আর এই দুই দলের কেউই আগে কোন দিন অর্জন করেনি এই বিশ্বকাপ৷

দীর্ঘ এক মাসের প্রতিযোগিতায় নানা নাটক৷ সেমিফাইনালের আগেই বিদায় ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার৷ ইংল্যান্ড এবং আর্জেন্টিনাকে হারিযে দেবার পর সকলের সামনে স্বপ্ন বুনতে দিচ্ছিলো জার্মানি৷ সেমিফাইনালে স্পেন সেই স্বপ্নও ভেঙ্গে দিয়ে নিজেরা চলে গেলো ফাইনালের ঘরে৷ অথচ হার দিয়ে শুরু করেছিল এই ইউরো চ্যাম্পিয়ন৷ অপরদিকে, বেশ ভালো খেলেই সিঁড়ি বেয়ে ফাইনালের ঘরে পৌঁছৈ গেলো নেদারল্যান্ডস৷ বিশ্বকাপে টানা ছয়টি ম্যাচে হার না মেনেই স্পেনের মুখোমুখি হচ্ছে নেদারল্যান্ডস৷ স্পেন কোচ ভিসেন্ত দেল বস্কে বলছেন, 'আমরা যেভাবে খেলে থাকি, সেভাবেই খেলবো৷ গোটা দল শিরোপা জেতার জন্য মুখিয়ে রয়েছে৷ এখন বাকি কাজটা করতে হবে মাথা ঠাণ্ডা রেখে৷'

নেদারল্যান্ডসের কোচ বার্ট ফন মারউইকও স্পেনকে দেখছেন বেশ শক্ত প্রতিপক্ষ হিসাবেই৷ রাখঢাক না রেখেই তিনি বলছেন, জেতার জন্য সামান্যতম ছাড় দেয়া হবে না৷ ইতিহাস নতুন করে লেখাতে চায় তার দল৷ ফুটবলবোদ্ধারা বলছেন, দুদলই মাঝ-মাঠ দখলে রেখে খেলতে চায়৷ এর মানে স্পেনের ইনিয়েস্তা - জাভি সঙ্গে লড়াই হবে হল্যান্ডের স্নাইডার - আরিয়েন রোবেনের৷ সামনে গোল করার জন্য তৈরি থাকবেন স্পেনের ডেভিড ভিয়া এবং নেদারল্যান্ডসের রবিন ফন পার্সি৷

এদিকে, ফাইনাল খেলার ঠিক আগে স্পেন ও নেদারল্যান্ডস জুড়ে তীব্রতর হয়েছে বিশ্বকাপ ফিভার৷ উভয় দেশের সমর্থকরাই রাস্তাগুলো রাঙিয়ে তুলেছেন লাল ও কমলার রং দিয়ে৷ হল্যান্ডের সবগুলো রাস্তা সারিবদ্ধ গোলাপি পতাকায় সাজিয়ে তোলা হয়েছে৷

দ্য হেগে এনিম্যাল প্রোটেকশন সার্ভিস খুব জোরে ভুভুজেলার শব্দ না বাজানোর অনুরোধ জানিয়েছেন, যাতে করে গৃহপালিত পশুগুলো আতঙ্কিত না হয়৷ ভক্তরা যাতে ভালভাবে খেলা দেখতে পারে সে বিষয়টি নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির পুলিশ বিভাগ৷ দেশটির সবচেয়ে বড় জমায়েত আশা করা হচ্ছে রাজধানী আমস্টারডামে৷

স্পেনের মাদ্রিদে খেলোয়াড়দের নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর জন্য খোলা ছাদের বাস ঠিক করে রাখা হয়েছে৷ এমনকি শিরোপা লাভে ব্যর্থ হলেও দলটিকে বীরোচিত সংবর্ধনা দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে৷ ফ্যান পার্কে স্থাপিত জায়ান্ট স্ক্রিনে বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখার জন্য মাদ্রিদের প্রাণকেন্দ্র ক্যাসেলানা এভিনিউতে কমপক্ষে হাজার হাজার মানুষ জমায়েত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

বিজ্ঞাপন