প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নিবন্ধন রাশিয়ার | বিশ্ব | DW | 11.08.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

রাশিয়া

প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নিবন্ধন রাশিয়ার

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন বলেছেন, মস্কোর গামেলেয়া ইন্সটিটিউট বিশ্বের প্রথম কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবন্ধন করিয়েছে৷ তার মেয়ে ইতিমধ্যে এই ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন পুটিন৷

মঙ্গলবার পুটিন জানান, মানুষের দেহে প্রায় দুই মাস পরীক্ষা চালানোর পর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ভ্যাকসিনটির অনুমোদন দিয়েছে৷ মন্ত্রিপরিষদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে তিনি বলেন, ‘‘আজ সকালে নতুন করোনা ভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিনটি নিবন্ধিত হয়েছে৷’’

গামালেয়া ইন্সটিটিউটের প্রশংসা এবং ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা সম্পর্কে আশ্বস্ত করতে গিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘‘আমি আবার বলতে চাই, এটা (ভ্যাকসিন) প্রয়োজনীয় সব পরীক্ষা উৎরে এসেছে৷ এটি ব্যবহার করা নিরাপদ- এই নিশ্চয়তা এবং এর কার্যকারিতা সম্পর্কেও নিশ্চয়তা দেয়া যায়, এটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷’’

ভ্যাকসিন নিয়েছেন পুটিনের মেয়ে

ভিডিও কনফারেন্সে পুটিন জানান, তার মেয়ে ইতিমধ্যে এই ভ্যাকসিন নিয়েছেন এবং তিনি ভালো আছেন৷ তিনি আরো দাবি করেন, ‘‘আমার এক মেয়ে ভ্যাকসিন নিয়েছে এবং এক অর্থে সে ভ্যাকসিন পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে৷’’

প্রথম দু'বার ভ্যাকসিন নেয়ার পর তার মেয়ের একটু জ্বর (৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) এসেছিল, তবে ‘‘পরে সব ঠিক হয়ে যায়৷ এখন সে ভালো আছে৷ তার অ্যান্টিবডি কাউন্টও এখন ভালো৷’’ 

পুটিনের দুই মেয়ে৷ একজনের নাম মারিয়া, অন্যজনের নাম কাতেরিনা৷ তাদের মধ্যে কে ভ্যাকসিন নিয়েছেন তা এখনো জানা যায়নি৷

আগে পাবেন যারা

করোনার ভ্যাকসিন কারা আগে নিতে পারবেন তা-ও ঠিক করে ফেলেছে রাশিয়া৷ সে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে,স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষক, পুলিশ, নিরাপত্তাকর্মী, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, অর্থাৎ যারা সামনের কাতারে দাঁড়িয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়ছেন, তারাই সবার আগে এই ভ্যাকসিন নেয়ার সুযোগ পাবেন৷

সেপ্টেম্বর থেকে ব্যাপক পরিসরে

প্রথম দেশ হিসেবে করোনার ভ্যাকসিনের নিবন্ধন করালো রাশিয়া৷ তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের আগেই নিবন্ধন করানোয় রাশিয়া এবং বাইরের বেশ কয়েকজন বিজ্ঞানী ভ্যাকসিনটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন৷ পুটিন অবশ্য দাবি করেছেন, পর্যাপ্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে৷

তবে এখনই ব্যাপক পরিসরে ভ্যাকসিন উৎপাদন করবে না রাশিয়া৷ তা শুরু হবে আগামী সেপ্টেম্বর থেকে৷

এসিবি/কেএম (এপি, রয়টার্স, এএফপি)

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন