প্রত্যেক নাগরিককে অঙ্গদাতা বানাতে চায় জার্মানি | বিশ্ব | DW | 01.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

প্রত্যেক নাগরিককে অঙ্গদাতা বানাতে চায় জার্মানি

অঙ্গ প্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপনের নতুন আইন করতে যাচ্ছে জার্মান সরকার৷ যার মাধ্যমে দেশটির প্রত্যেক নাগরিকই অঙ্গদাতা হিসেবে নিবন্ধিত হবেন৷

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পান সোমবার মানবদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপন বিষয়ক নতুন আইনের একটি খসড়া প্রস্তাব দিয়েছেন৷ বর্তমান আইন অনুযায়ী জার্মানরা স্বেচ্ছায় অঙ্গ প্রত্যঙ্গ দান করলেও এই বিধিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে, যা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে৷

নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী প্রত্যেক নাগরিকই অঙ্গ-দাতা হিসেবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধিত হবেন৷ এক্ষেত্রে তাদের কোনো মতামত নেয়া হবে না৷ তবে কেউ দান করতে না চাইলে যে-কোনো সময় নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিতে পারবেন৷ এমনকি মৃত্যুর পরে পরিবারের সদস্যরাও তা প্রত্যাহার করে নিতে পারবেন৷

নতুন ব্যবস্থা এবং নাম প্রত্যাহার করে নেয়ার ব্যাপারে নাগরিকদের কয়েক দফা অবহিত করার কথাও প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়েছে৷

  

আবশ্যক নয়

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের দল সিডিইউ-র সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্পান বিতর্কিত খসড়াটি নিয়ে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে নিজের অবস্থান তুলে ধরেন৷ এ সময় এই প্রস্তাবের সমর্থক বিভিন্ন দলের আইনপ্রণেতারাও উপস্থিত ছিলেন

স্পান বলেন, প্রস্তাবে অঙ্গ প্রত্যঙ্গ দানের কোনো বাধ্যবাধকতা নেই৷ ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৮টি সদস্য দেশের ২০টিতেই এমন ব্যবস্থা রয়েছে৷ ‘‘এখন পর্যন্ত আমরা যা করেছি তা দাতার সংখ্যা বাড়াতে পারেনি,'' বলেন তিনি৷

জার্মানির জোট সরকারের অংশ এসপিডি দলের স্বাস্থ্য নীতি বিশেষজ্ঞ কার্ল  লাউটারবাখও প্রস্তাবটি সমর্থন করেছেন৷ তিনি জানান প্রতিবছর হাজারও মানুষ অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের জন্য অপেক্ষায় থেকেই মারা যাচ্ছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘যে পরিমাণ প্রতিস্থাপন হচ্ছে তার চেয়েও দশগুণ বেশি মানুষ এখনও অপেক্ষমাণ তালিকায় থাকছেন৷''

গত বছর জার্মানিতে প্রায় ৯,৪০০ জন অঙ্গ প্রতিস্থাপনের অপেক্ষমাণ তালিকায় ছিলেন৷ এই সময়ে সর্বমোট ১,০০০ জনের অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়েছে, আর তালিকায় থাকা ২,০০০ জন মৃত্যুবরণ করেছেন৷ 

বিপরীত প্রস্তাব

এদিকে, সবুজ দল, বাম ও রক্ষণশীল ক্রিশ্চিয়ান সোশ্যাল ইউনিয়নের এক দল আইনপ্রণেতা বিকল্প এক প্রস্তাব তুলে ধরেছে৷ তাদের দাবি, এটি অনুসরণ করা হলে বিদ্যমান ব্যবস্থার মধ্যেই অঙ্গ দানের হার বাড়ানো যাবে৷

ডাক্তারের কার্যালয়ে কিংবা পরিচয়পত্র নবায়নের জন্য যখন নাগরিকরা আসবেন তাদের কাছে তখন অঙ্গদানের বিষয়ে আবেদন করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে৷ এই রাজনীতিবদদের মতে, প্রক্রিয়াটি অবশ্যই সচেতন এবং স্বেচ্ছাধর্মী হতে হবে৷ রাষ্ট্র কোনোভাবেই এই সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিতে পারবে না৷

বিদ্যমান ব্যবস্থা অনুযায়ী কেউ দাতা হিসেবে ঘোষণা দিলে এবং এই সংক্রান্ত কার্ড থাকলেই তার অঙ্গ প্রতিস্থাপনের জন্য নিতে পারেন ডাক্তাররা৷ নতুন আইনের দুটি খসড়া নিয়েই জার্মান সংসদের নিম্ন কক্ষ বুন্ডেসটাগে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে৷

এফএস/জেডএইচ (এএফপি, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন