প্রত্যর্পণ বিলকে ‘মৃত′ বললেন ল্যাম | বিশ্ব | DW | 09.07.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

হংকং

প্রত্যর্পণ বিলকে ‘মৃত' বললেন ল্যাম

অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে লাগাতার বিক্ষোভ ও সংঘাতের মধ্যে হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যাম বলেছেন, বিলটি এখন মৃত৷ তবে এমন বক্তব্যের ফলে বিলটি সম্পূর্ণ বাতিল হলো কি-না, তা নিয়ে এখনো সন্দিহান আন্দোলনকারীরা৷

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ক্যারি ল্যাম বলেন, ‘‘বিলটি নিয়ে সরকারের আন্তরিকতা নিয়ে অব্যাহত সন্দেহ বিরাজ করছে এবং এটি পুনরায় চালু হবে কি-না, তা নিয়ে আছে দুশ্চিন্তা৷ তবে আমি পুনর্ব্যক্ত করছি, এ ধরনের কোনো পরিকল্পনা নেই৷ বিলটি মৃত৷''

চীন ও তাইওয়ানের কাছে অপরাধী প্রত্যর্পণের জন্য একটি বিল পাসের উদ্যোগ নেওয়া হলে জুনের শুরুতে হংকংয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল৷ বিক্ষোভের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটে৷

এই আইন পাস হলে চীন, তাইওয়ান ও ম্যাকাউ সরকারের আহ্বানে কোনো মামলায় অভিযুক্তকে ফেরত পাঠাতে পারবে হংকং৷ বর্তমান আইনে যে বিধান নেই৷

এরপর জুনের মাঝামাঝিতে বিলটি স্থগিতের ঘোষণা হংকংয়ের নেতাক্যারি ল্যাম দিলেও বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে৷ গত সপ্তাহের শুরুতে হংকংয়ের সংসদ ভবনে ব্যাপক ভাংচুর চালায় বিক্ষোভকারীরা৷

রোববার রাতেও পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের পর মঙ্গলবার এসে বিলটি ‘মৃত' বলে উল্লেখ করলেন ল্যাম৷ তবে, বিলটি বাতিলের দাবি বিক্ষোভকারীরা জানিয়ে আসলেও তিনি ‘বাতিল' শব্দ উল্লেখ করেননি৷

আন্দোলনকারীদের দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে বলে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে মন্তব্য করেন ক্যারি ল্যাম৷ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা না করে এমন বক্তব্য দেওয়াকে ‘প্রতারণা' হিসাবে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনের সংগঠক জিমি শাম ও বনি লেউং৷

বিলটি পুরোপুরি বাতিল না করে ক্যারি ল্যাম ‘শব্দের খেলা' খেলছেন বলে অভিযোগ করেছেন হংকংয়ে ২০১৪ সালে আমব্রেলা মুভমেন্টের তরুণ সংগঠক জোসুয়া ওং৷

বিলটি সম্পূর্ণ বাতিলের দাবি জানিয়ে এক টুইটে তিনি লেখেন, ‘‘বিলটি মৃত বলে ক্যারি ল্যাম যে বক্তব্য দিয়েছেন, তা হংকংয়ের জনগণ ও বিদেশি গণমাধ্যমের কাছে আরেকটি মিথ্যা কথা৷ কারণ আগামী বছরের জুলাই পর্যন্ত সংসদের কার্যসূচিতে থাকছে বিলটি৷''

এমবি/ (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন