‘প্রকৃত বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিমনারা উগ্রবাদ সমর্থন করবেন না′ | পাঠক ভাবনা | DW | 10.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘প্রকৃত বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিমনারা উগ্রবাদ সমর্থন করবেন না'

ভারতের প্রায় ৬০০ কবি, সাহিত্যিক ও বিজ্ঞানী বিজেপি বর্জনের ডাক দিয়েছেন৷ এ বিষয়ে ডয়চে ভেলেতে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি পড়ে ফেসবুক পাতায় অনেক পাঠক মন্তব্য করেছেন৷

পাঠক জাহিদ হাসান শিশির লিখেছেন, ‘‘সাবাস, ভারতের   বুদ্ধিজীবীদের মেরুদণ্ড  আছে দেখা যায়৷'' মাহমুদুল হাসান মনে করেন আরও আগেই বিজেপি বর্জনের ডাক দেয়া উচিত ছিল৷

প্রণব মিত্রের মত এরকম, ‘‘মুসলিম উগ্রবাদ কি সমর্থন করবেন? ভুলে গেলে চলবে না ধর্মের ভিত্তিতে দেশ ভাগ হয়েছিল৷ ভারতে অসুবিধা হলে পাকিস্তানে চলে যাওয়া উচিত৷''

পাঠক সৌরম কুন্ডের বিশ্বাস, ‘‘হিন্দুরানয়, হতে পারেনা, হলে একটি বিশেষ শ্রেণির ধর্মের লোকেরা ভারতে জনসংখ্যা বাড়াতে পারতো না৷''

তবে বিজেপি আবার ক্ষমতায় আসুক তা চাননা পাঠক গাজী৷ পাঠক আসিফ ওসমানেরও একই মত৷

আর সাম্প্রদায়িকতাকে পুরোপুরি ঘৃণা করেন পাঠক প্রকাশ কর্মকার৷

তবে ‘‘প্রকৃত বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিমনারা উগ্রবাদকে স্বাভাবিকভাবে সমর্থন করবেন না,'' এমনটাই আশা করছেন ডয়চে ভেলের পাঠক এইচএম ইফতেখার আলম রাজীব৷

বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিমনা ব্যক্তিদের বিজেপি বর্জনের এই ডাক কি অশিক্ষিতরা শুনবেন? পাঠক আশরাফ দেওয়ানের মনে এই প্রশ্ন৷

‘‘যারা ভারতে ধর্মনিরপেক্ষতা চায়, তাঁরাই কাশ্মীরের স্বাধীনতা চায়, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানে শরিয়া আইন চায়, ব্রনাইয়ের সুলতানকে বাহবা দিচ্ছে৷ এবার বলেন নিরপেক্ষতা কাকে বলে?'' এই প্রশ্ন পাঠক যোগেশ্বর রাডের৷

তবে রাসেল আহমেদ দুঃখ করে লিখেছেন, ‘‘ভাই, ভারতেতো ভোটাধিকার আছে, আমাদেরতো সেটাও নাই৷''

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন