পোল্যান্ডে নাৎসি নির্যাতনের স্মৃতিস্থলে ম্যার্কেল | বিশ্ব | DW | 06.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

পোল্যান্ডে নাৎসি নির্যাতনের স্মৃতিস্থলে ম্যার্কেল

চ্যান্সেলর হওয়ার পর প্রথমবারের মতো নাৎসি নির্যাতনের স্মৃতি বিজড়িত আউসভিৎজ-বেয়ারকানাও পরিদর্শনে গেছেন আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ বলেছেন, সেই সময়কার অপরাধ স্মরণ করা এবং তার দায় নেয়া জার্মানির জাতীয় অস্তিত্বের সঙ্গে সম্পর্কিত৷

চ্যান্সেলর হিসেবে ১৪ বছর দায়িত্ব পালনের পর প্রথমবারের মতো পোল্যান্ডের আউসভিৎজ-বেয়ারকানাও পরিদর্শন করলেন আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ এ সময় তার সঙ্গে উপস্তিত ছিলেন পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মাতাউশ মোরাভিয়েস্কি৷

এর আগে নাৎসি শাসন আমলে ইহুদি নিধনের ঘটনায় বেঁচে যাওয়াদের প্রতি সহমর্মিতা জানাতে ম্যার্কেলকে সেখানে আসার আহবান জানায় দ্য ইন্টারন্যাশনাল আউসভিৎজ কমিটি৷ ম্যার্কেল বেয়ারকানাও ক্যাম্পে গিয়ে বক্তৃতায় বলেন. ‘‘জার্মানির দ্বারা এখানে যে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে তার জন্য আমি ভীষণ মর্মাহত৷'' এই অপরাধ স্মরণ করা এবং তার দায় নেয়াকে জার্মানির জাতীয় অস্তিত্বের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলেও উল্লেখ করেন তিনি৷

ম্যার্কেল বলেন, ‘‘ইহুদিদের জীবন রক্ষা জার্মানদের দায়িত্ব৷’’ জার্মানিতে ইহুদিবিদ্বেষ সহ্য করা হবে না বলেও যোগ করেন তিনি৷

ম্যার্কেল আউসভিৎজের একটি দেয়াল পরিদর্শন করেন, যেখানে নাৎসি আধা সামরিক বাহিনী গুলি করে কয়েক হাজার পোলিশ রাজনৈতিক বন্দিকে হত্যা করে৷

আইসভিৎজ-বেয়ারকানাও ফাউন্ডেশনের ১০তম বার্ষিকী উপলক্ষে সেখানে যান ম্যার্কেল৷ সংগঠনটিতে ছয় কোটি ৭০ লাখ ডলার অনুদান দেয়ার ঘোষণাও দেন তিনি৷

ক্রিস্টফ স্ট্রাক/এফএস

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন