পোশাক কারখানায় আগুন, ১১২টি লাশ উদ্ধার | বিশ্ব | DW | 25.11.2012

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

পোশাক কারখানায় আগুন, ১১২টি লাশ উদ্ধার

বাংলাদেশের ঢাকার অদূরে আশুলিয়ায় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় আগুন লেগে মৃত্যুকূপে পরিণত হয়েছে৷ পুরো কারখানাটিই পরিণত হয়েছে লাশের ভাগাড়ে৷ আগুন নেভানোর পর ১১২ টি লাশ উদ্ধার করা হয়৷ অনেকে এখনো নিখোঁজ আছেন৷

এই শোকাবহ ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে পড়েছেন দেশের মানুষ৷ আর স্বজনদের আহাজারিতে আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর যেন আরেক কারবালা৷ এই কান্নার কোন জবাব নেই ৷ নেই কোন শন্তনা৷

তাজরীন ফ্যাশান নামের বহুতল পোশাক কারখানাটিতে আগুন লাগে শনিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে৷ আর তা নেভানো সম্ভব হয় রোববার ভোর ৬ টার দিকে৷ আগুনে পুড়ে খাক হয়েছে কারখানাটির শতাধিক নারী ও পুরুষ শ্রমিক৷ ভাই তার বোনকে খুঁজছেন৷ বোন খুঁজছেন ভাইকে৷ মা সন্তানকে৷ মৃত্যুর মিছিল আর স্বজনহারাদের আহাজারি৷

আগুন নেভানোর পর উদ্ধার অভিযান শুরু হলে বিকেল পর্যন্ত ১১২ জনের লাশ পাওয়া যায় আগুনে পোড়া ধ্বংসস্তূপের মাঝে৷ কিন্তু অনেক লাশই সনাক্ত করা যাচ্ছে না৷ ভয়াবহ আগুনে পুড়ে বিকৃত হয়ে গেছে৷ বিকেল পর্যন্ত ৪৫ টি লাশ সনাক্ত করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে৷ তবে এখনো অনেক পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ আছেন৷

এই উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছেন সেনা সদস্যরাও৷ সাভারের জিওসি মেজর জেনারেল সৈয়দ হাসান সারওয়ার্দি জানান, তারা চেষ্টা করছেন প্রতিটি লাশ তাদের পরিবারের কাছে ফেরত দেয়ার৷ যাদের লাশ শেষ পর্যন্ত সনাক্ত করা যাবে না সেই লাশ সরকারি ব্যবস্থাপনায় দাফন করা হবে৷

Relatives mourn the death of a garment worker after a devastating fire in a garment factory in Savar November 25, 2012. A fire swept through Tazreen Fashion factory in the Ashulia industrial belt of Dhaka, on the outskirts of Bangladesh's capital killing more than 100 people, the fire brigade said on Sunday, in the country's worst ever factory blaze. REUTERS/Andrew Biraj (BANGLADESH - Tags: DISASTER BUSINESS EMPLOYMENT TPX IMAGES OF THE DAY)

নিহতদের স্বজনদের আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠেছে পরিবেশ

ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দলের পরিচালক মাহবুবুর রহমান জানান, তাজরীন ফ্যাশানে নেই অগ্নি নির্বাপণের কার্যকর ব্যবস্থা৷ সিঁড়িগুলোও বন্ধ করে দেয়া হয়৷ নীচতলার সুতার গুদামে আগুন লাগার পর তা দ্রুতই ছড়িয়ে পরে সব ফ্লোরে৷

সরকারের মন্ত্রী ও বিজিএমইএ নেতারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন৷ আগুনের ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এটি কোন নাশকতা কিনা তা তদন্ত করে দেখা হবে৷ আর দেয়া হবে ক্ষতিপূরণ৷

বাংলাদেশে প্রায় ৫ হাজার তৈরি পোশাক কারখানা আছে৷ রপ্তানি আয়ের ৮০ ভাগই আসে পোশাক শিল্প থেকে৷ ফায়ার সার্ভিস জানায়, তাদের হিসাবে এই ঘটনার আগে ২০০৬ সাল থেকে প্রায় ৬০০ পোশাক শ্রমিক মারা গেছেন কাখানায় আগুন লেগে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়