পুলিশ হত্যা চেষ্টার দায়ে কারাগারে সাবেক ′মিস্টার জার্মানি′ | বিশ্ব | DW | 10.10.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

পুলিশ হত্যা চেষ্টার দায়ে কারাগারে সাবেক 'মিস্টার জার্মানি'

এক সময় জার্মানির সবচেয়ে সুদর্শন পুরুষের খেতাব জিতেছিলেন আদ্রিয়ান ইউ৷ এক পুলিশকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করার অভিযোগে তিনি এখন কারাগারে৷ মামলার বাদী মনে করেন, আদ্রিয়ান রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের সাথে জড়িত এক কট্টর ডানপন্থি৷

 সোমবার জার্মানির হালে শহরের আদালতে হাজির করার আগে পুলিশ তাঁকে এই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করে৷ 

গত বছরের আগস্টে জার্মানির বিশেষায়িত ‘এসইকে' কমান্ড বাহিনীর এক অফিসারকে গুলি করার অভিযোগে ৪২ বছর বয়সি এই সুদর্শনকে কারাগারে যেতে হয়৷ কর্তৃপক্ষ তাকে সাক্সনির রয়ডেনে তার বাড়ি থেকে তাকে জোর করে বের করে আনে৷  

আদালতকে পাবলিক প্রসিকিউটর জানান, কোনোরকম দ্বিধা ছাড়াই পুলিশ সদস্যের মাথা লক্ষ্য করে গুলি করা হয়েছিল৷ কেবল মাথায় শক্ত হেলমেট থাকায় তিনি মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে গেছেন৷

রাইশব্যুর্গারদের একাত্মতা

প্রসিকিউশন এ কথাও জানায় যে, আদ্রিয়ান ইউ তথাকথিত ‘রাইশব্যুর্গার আন্দোলনের' সাথে জড়িত ছিল৷ ধারণা করা হয়, তিনিও ‘রাইশ নাগরিক'দের একজন, যারা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ফেডারেল জার্মান প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠাকে অস্বীকার করে৷ বর্তমানের বদলে তারা কেবল আগের আইন ও সংবিধান মানে৷

ভিডিও দেখুন 12:03
এখন লাইভ
12:03 মিনিট

Countering right-wing extremism

'প্রতিহত করার অধিকার'

আদ্রিয়ান ইউ অবশ্য হত্যা চেষ্টার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷ তিনি বলেন, যদিও তাঁর হতে সেই সময় অস্ত্র ছিল, তবে তিনি গুলি করেননি৷ একইসাথে তাঁর বিরুদ্ধে কট্টর ডানপন্থা অবলম্বনের যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা-ও অস্বীকার করেন তিনি৷ আদালতকে বলেন, ‘‘আমি একজন জার্মান নাগরিক৷বাড়িতে যখন কেউ আমার ওপর আক্রমণ করে, তখন তা ঠেকানোর অধিকার আমার আছে৷''

এএম/এসিবি (ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও