পুলিশের গুলিতে আরও দুই রোহিঙ্গা নিহত | বিশ্ব | DW | 13.09.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

পুলিশের গুলিতে আরও দুই রোহিঙ্গা নিহত

যুবলীগ নেতা মো. ওমর ফারুক হত্যায় অভিযুক্ত দুই রোহিঙ্গা শুক্রবার গুলিতে নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে৷ এ নিয়ে ফারুক হত্যায় জড়িত সন্দেহে ছয় রোহিঙ্গা গুলিতে প্রাণ হারালেন বলে জানিয়েছে এএফপি৷

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কক্সবাজারের পুলিশ প্রধান মাসুদ হোসেন এএফপিকে জানান, ‘‘শুক্রবার ভোরের দিকে টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে গুরুতর আহত হন দুই রোহিঙ্গা৷ এরপর তাদের হাসপাতালে মৃত ঘোষণা করা হয়৷''

ঐ দুই রোহিঙ্গা ডাকাতি, অপহরণ ও মাদক পাচারের সঙ্গে জড়িত ছিল বলেও জানান মাসুদ হোসেন৷ তাঁর হিসেবে, এ পর্যন্ত ফারুক হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজন পাঁচ রোহিঙ্গা প্রাণ হারিয়েছেন৷ তবে কক্সবাজার পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া হিসেব সূত্রে এএফপি বলছে, নিহত রোহিঙ্গার সংখ্যা ছয়জন৷

শুক্রবার নিহত রোহিঙ্গারা হলেন, হ্নীলা নয়াপাড়া রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের বাসিন্দা জমির আহমদের ছেলে মো. আব্দুল করিম (২৪) এবং একই শিবিরের বাসিন্দা ছৈয়দ হোসেনের ছেলে নেছার আহাম্মদ প্রকাশ ওরফে নেছার ডাকাত (২৭)৷ এই ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি পুলিশের৷

২০১৭ সালের আগস্ট থেকে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ৩৬ জন রোহিঙ্গা বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে প্রাণ হারিয়েছেন বলে জানা যায়৷ বিভিন্ন মানবাধিকার গ্রুপ বাংলাদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ এনেছে৷

জেডএইচ/কেএম (এএফপি, ডেইলি স্টার)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন