পুটিনের যুদ্ধ ইউরোপের মূল্যবোধবিরোধী: শলৎস | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 28.05.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

পুটিনের যুদ্ধ ইউরোপের মূল্যবোধবিরোধী: শলৎস

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস বলেছেন, ‘‘ইউক্রেনে একটি অমানবিক যুদ্ধ চালিয়ে পুটিনের ছাড় পাওয়া উচিত নয়৷’’ যুদ্ধের সময়ে পুটিন খাদ্য সংকটকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে চাইছে বলেও মনে করেন তিনি৷

Deutschland | Katholikentag in Stuttgart | Olaf Scholz

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস

জার্মানির স্টুটগার্ট শহরে শুক্রবার ক্যাথলিকদের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এমন মন্তব্য করেন শলৎস৷ তিনি বলেন, ‘‘চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনকে সহযোগিতা দিয়ে যেতে জার্মানি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ৷’’

এসময় তিনি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি থেকে আসা শরণার্থীদের সহায়তা করায় ক্যাথলিক চার্চগুলোকে ধন্যবাদ জানান৷

শলৎস বলেন, ‘‘পুটিনের এই যুদ্ধ শুধু ইউক্রেনের বিরুদ্ধেই নয়, বরং যে মূল্যবোধ ও বিশ্বাস ইউরোপকে গণতন্ত্র, স্বাধীনতা এবং মানবিক মর্যাদার সমাজ হিসেবে গড়ে তুলেছে এ যুদ্ধ তার বিরুদ্ধেও৷’’

এসময় তিনি জানান, রাশিয়া হামলা চালানোর পর থেকে এ পর্যন্ত আট লাখ ইউক্রেনীয় শরণার্থী জার্মানিতে আশ্রয় নিয়েছেন৷

জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, ‘‘তিনি (ভ্লাদিমির পুটিন) সবসময় আমাদেরকে পশ্চিম বলে আখ্যায়িত করেন৷ তার বিরুদ্ধে যারা কথা বলছে তাদের সবাইকে তিনি শত্রু হিসেবে চিহ্নিত করেতে চান এবং এদের বিরুদ্ধে তিনি বাকি দেশগুলোকে নিয়ে একটি জোট গড়তে চান৷’’ 

ইউক্রেনের বধিরদের সহযোগিতায় পোল্যান্ডের বধিরেরা

 

‘খাদ্য সংকটের জন্য পুটিন দায়ী’

প্রসঙ্গত, চলতি মাসের শুরুর দিকে বিশ্ব খাদ্য সংস্থা রাশিয়ার প্রতি কৃষ্ণ সাগরের বন্দরগুলো খুলে দেওয়ার আহ্বান জানায় যেন ইউক্রেনের খাদ্যপণ্য সংকটে থাকা বিভিন্ন দেশ যেমন আফগানিস্তান, ইথিওপিয়া, দক্ষিণ সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেনে সরবরাহ করতে বিঘ্ন না ঘটে৷

শলৎসের মতে, পুটিন যুদ্ধ শুরু করায় খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে৷ তবে, এই সংকটের জন্য যে দেশগুলো ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়েছে তাদেরকে দায়ী করছেন পুটিন৷    

আরআর/এআই (কেএনএ, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন