পুটিনের বক্তৃতায় বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী মিসাইল | বিশ্ব | DW | 02.03.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

রাশিয়া

পুটিনের বক্তৃতায় বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী মিসাইল

রাশিয়াকে এবার সমঝে চলতে হবে৷ কারণ তাদের হাতে নাকি বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী মিসাইল৷ জাতির উদ্দেশে ভাষণে এমনটাই জানালেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন৷

রাশিয়ার হাতেই এখন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র৷ পৃথিবীর কোনো দেশ এখনো যা তৈরি করে উঠতে পারেনি৷ জাতির উদ্দেশে ভাষণে এমনই জানালেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন৷ তিনি জানিয়েছেন, রাশিয়া একটি নতুন মিসাইল তৈরি করেছে৷ পারমাণবিক যে মিসাইলকে কোনো মিসাইল ট্র্যাকার দেখতে পাবে না৷ সমুদ্রের গভীরেও ওই মিসাইল ব্যবহার করা সম্ভব৷ পুটিন বলেছেন, বিশ্বের শক্তিশালী দেশগুলির মধ্যে অন্যতম রাশিয়া৷ কিন্তু বহু সময়েই রাশিয়ার ক্ষমতাকে খাটো করা হয়৷ তাঁর আশা, এরপর সকলেই রাশিয়াকে সমঝে চলবে৷

স্বাভাবিক ভাবেই পুটিনের এই ঘোষণার পর সমালোচনার ঝড় উঠেছে বিশ্ব জুড়ে৷ অ্যামেরিকা বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে যে, রাশিয়ার এই পদক্ষেপ বিশ্বের শক্তিসাম্য নীতির বিরোধী৷ বস্তুত, রাশিয়ার এমন মিসাইল তৈরি করা অনুচিত হয়েছে বলে প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছে অ্যামেরিকা৷ বিশেষজ্ঞেরাও বলছেন, ঠান্ডা যুদ্ধের সময় রাশিয়া যে ধরনের বিবৃতি দিত, পুটিনের বক্তব্যেও তার অনুরণন রয়েছে৷

রাজনৈতিক পরিদর্শক সুসেন স্পান ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, ঠান্ডা যুদ্ধের সময় অ্যামেরিকা এবং পশ্চিম দুনিয়ার সঙ্গে রাশিয়ার লড়াই স্পষ্ট ছিল৷ সে সময়েও রাশিয়া বার বার শক্তিপ্রদর্শন করে নিজেদের ক্ষমতা প্রকাশ করতো৷ বৃহস্পতিবার পুটিনের বক্তব্যেও সেই আগ্রাসন লক্ষ্য করা গিয়েছে৷ পুটিন বলেছেন, এবার রাশিয়াকে সমঝে চলতে হবে বিশ্বের সমস্ত দেশকে৷ তবে পাশাপাশি পুটিন জানিয়েছেন, যুদ্ধের জন্য ওই মিসাইল রাশিয়া তৈরি করেনি৷ নিজেদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতেই মিসাইলটি তৈরি হয়েছে৷ কিন্তু রাজনৈতিক পরিদর্শকদের মতে, রাশিয়ার বক্তব্যে আগ্রাসন স্পষ্ট৷

শুধু তাই নয়, অ্যামেরিকা জানিয়েছে, পুটিন যখন মিসাইলের কথা বলছিলেন, তখন একটি গ্রাফিক চালানো হয়েছিল৷ যেখানে দেখানো হয়েছে, মিসাইলটি অ্যামেরিকার উপর প্রয়োগ করা হচ্ছে৷ মার্কিন বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এমন দৃশ্য কখনোই কাম্য নয়৷

আগামী মার্চ মাসে রাশিয়ায় নির্বাচন৷ বিশেষজ্ঞদের ধারণা, এবারো বিপুল ভোটে ক্ষমতায় ফিরবেন পুটিন৷ তার আগে জনগণকে উত্তেজিত করতেই এতটা আগ্রাসী বক্তব্য পেশ করলেন তিনি৷ এবং রাশিয়ার শক্তির পরিচয় দিলেন৷

এসজি/ডিজি (ডিপিএ, এপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়