পিস্তল নিয়ে পরীক্ষার হলে, মাটিতে বসে ব্যাপক টোকাটুকি | বিশ্ব | DW | 22.05.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

পিস্তল নিয়ে পরীক্ষার হলে, মাটিতে বসে ব্যাপক টোকাটুকি

পরীক্ষার হলে গণটোকাটুকির নজিরবিহীন দৃশ্য এবার সামনে এলো৷ সেই সঙ্গে ভারতের উত্তরপ্রদেশের শিক্ষাব্যবস্থার চূড়ান্ত ব্যর্থতাও৷ সৌজন্যে ভাইরাল ভিডিও৷

পরীক্ষা এবং নাম্বার নিয়ে এ কালের প্রজন্ম বেশ সচেতন৷ কেরিয়ারকেন্দ্রিক জীবনের ইঁদুর দৌড়ে প্রাপ্ত নাম্বার-টাই শেষ কথা৷ কিন্তু তা বলে কি যেনতেনপ্রকারেণ নাম্বার পাওয়াটাই পরীক্ষার্থীদের লক্ষ্য?

এই ভিডিওর জন্যই আগ্রায় পরীক্ষার্থীদের লক্ষ্য এবং পরীক্ষাব্যবস্থার আসল ছবিটাও উঠে এলো৷ ভিডিওতে দেখা গিয়েছে ডক্টর ভীমরাও রামজী আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের ছাত্ররা মাটিতে বসে গণহারে নকল করছে৷ পাশাপাশি অন্য একটি ঘটনাও দেখিয়েছে, এক তরুণ প্যান্টে পিস্তল গুঁজে পরীক্ষার হলে উপস্থিত!

ভিডিওর কল্যাণেই ব্যাপকহারে টোকাটুকির দৃশ্য কর্তৃপক্ষেরও চোখে পড়লো৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডক্টর অরবিন্দ কুমার দীক্ষিত জানিয়েছেন, ব্যাপারটা তদন্ত করে দেখা হবে৷ একজন পিস্তল নিয়ে কলেজের ভেতরে ঢুকলোই বা কী করে আর পরীক্ষার হলে ছাত্রদের বসার জন্য বেঞ্চ-ই বা নেই কেন? 

পরীক্ষার্থী তো আর পিস্তল নিয়ে হলে আসে না, তবে এই সশস্ত্র পরীক্ষার্থী কে? পিস্তল নিয়ে যে পরীক্ষার হলে ঢুকেছে, তার পরিচয় খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি৷

টোকাটুকির ব্যাপারটা উত্তর প্রদেশে নতুন নয়৷ শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্যের এমন বাড়াবাড়ি রকমের ছবি যে আগে পাওয়া যায়নি, এমনটা নয়৷ কড়া পুলিশ প্রহরা অগ্রাহ্য করেও দিব্যি চলে টোকাটুকি! গত মাসে উত্তর প্রদেশ থেকেই ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ এরা সকলেই ক্লাস টুয়েলভ-এর পরীক্ষার্থীদের সাহায্য করছিল বলে অভিযোগ৷

উত্তর প্রদেশে গণটোকাটুকি নিয়মিতভাবেই হয়৷ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এ বছর অনেক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন পরীক্ষায় জালিয়াতি ঠেকাতে৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও ভিডিও দেখাচ্ছে অন্য দৃশ্য!     

পিএস/এসিবি

গত জুনের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন