পালাতে গিয়ে রোহিঙ্গাদের নৌকাডুবি, নিখোঁজ অনেক | বিশ্ব | DW | 15.08.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

পালাতে গিয়ে রোহিঙ্গাদের নৌকাডুবি, নিখোঁজ অনেক

ভাসানচর থেকে পালানোর সময় রোহিঙ্গাদের একটি নৌকা বঙ্গোপসাগরে ডুবে গেছে৷ নৌকাটিতে নারী-শিশুসহ ৪০ জনের মতো ছিলেন৷ এ পর্যন্ত ১৪ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে৷

Bangladesch | Ein erschöpfter Rohingya Flüchtling berührt den Boden nach der Überquerung von Bangladesch-Myanmar Grenze mit einem Boot

ফাইল ফটো

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে পুলিশ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার ভোরে একটি মাছ ধরার নৌকায় ৪০ জনের মতো রোহিঙ্গা শরণার্থী পালাতে গেলে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে নৌকাটি ডুবে যায়৷ জেলেরা ১৪ জনকে উদ্ধার করে আবার ভাসানচরে নিয়ে যান৷ পরে কোস্ট গার্ড, নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধারকাজ শুরু করেন৷ কোস্টগার্ডের মিডিয়া উইংয়ের প্রধান লেফট্যানেন্ট কমান্ডার আব্দুল হক সাংবাদিকদের জনান রোববার বিকাল ৫ টার দিকে ১০ বছর বয়সি একটি শিশুর লাশ উদ্ধার করেছেন তারা৷ তার নাম আব্দুল হাফেজ৷ নৌকা থেকে নিখোঁজদের উদ্ধারের চেষ্টা এখনো চলছে৷

রোহিঙ্গাদের এভাবে পালাতে চাওয়ার কারণ জানাতে গিয়ে ভাসানচরের রোহিঙ্গা শরণার্থী আব্দুল হামিদ বলেন, ‘‘এখানে বাস করা সহজ নয়৷ এখানকার মানুষেরা কক্সবাজারের শিবিরে তাদের যে আত্মীয়রা আছেন, তাদের সঙ্গে দেখা করতে যেতে পারেন না৷ এ কারণে মানুষ অস্থির হয়ে যাচ্ছে এবং এই জায়গা ছেড়ে যাওয়ার জন্য ঝুঁকি নিচ্ছে৷''

বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থার আপত্তি সত্ত্বেও কক্সবাজারের শিবির থেকে ২০ হাজারের মতো রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে সরিয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার৷ শনিবারের নৌকাডুবির ঘটনায় ইতোমধ্যে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা৷

এসিবি/এফএস (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়