পাঞ্জাবে জিততে পারলো না আপ, উত্তরপ্রদেশে অখিলেশ | বিশ্ব | DW | 27.06.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

পাঞ্জাবে জিততে পারলো না আপ, উত্তরপ্রদেশে অখিলেশ

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী মানের ছেড়ে দেয়া লোকসভা আসনে হারলো আপ। অখিলেশের ছেড়ে দেয়া লোকসভা আসনে জিতলো বিজেপি।

নিজের ছেড়ে দেয়া লোকসভা আসনে দলকে জেতাতে পারলেন না ভগবন্ত মান।

নিজের ছেড়ে দেয়া লোকসভা আসনে দলকে জেতাতে পারলেন না ভগবন্ত মান।

গত মার্চে পাঞ্জাবে কংগ্রেস, অকালি ও বিজেপি-কে প্রায় মুছে দিয়ে ১১৭টি আসনের মধ্যে ৯২টিতে জিতে ক্ষমতায় এসেছিল অরবিন্দ কেজিরওয়ালের আম আদমি পার্টি। মাস তিনেকও হয়নি, তার মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মানের ছেড়ে দেয়া লোকসভা আসনের উপনির্বাচনে হারলো আপ। মুখ্যমন্ত্রী মান নিজের আসনে দলকে জেতাতে পারলেন না। সাংরুর আসনটি জিতে নিলো শিরোমনি অকালি দল(এ)।

গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের আজমগড় থেকে জিতেছিলেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব এবং রামপুর থেকে জেতেন দলের অন্যতম প্রধান মুসলিম নেতা আজম খান। গত বিধানসভা নির্বাচনে দুজনেই জিতেছিলেন। দুজনেই রাজ্য রাজনীতিতে থাকতে চান বলে লোকসভা থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। উপনির্বাচনে রামপুর এবং আজমগড় জিতে নিয়েছে বিজেপি। এই দুইটি কেন্দ্রেই মুসলিম ভোটদাতার পরিমাণ যথেষ্ট।

আজমগড়কে একসময় সমাজবাদী পার্টির দুর্গ বলা হতো। অখিলেশ এবার সেখানে প্রচারও করেছিলেন। তারপর সেখানে দলের এই হার হয়েছে। সেখান থেকে দীনেশ লাল যাদবের জয়কে অখিলেশের বড় ধাক্কা হিসাবে দেখা হচ্ছে। তেমনই রামপুর লোকসভা আসনটি ধরে রাখতে না পারাও অখিলেশ ও আজম খানের বড় ব্যর্থতা।

এই জয়ের পরেই প্রধানমন্ত্রী মোদী টুইট করে বলেছেন, আজমগড় ও রামপুর উপনির্বাচনে জয় হলো ঐতিহাসিক ঘটনা। কেন্দ্রে ও উত্তরপ্রদেশে বিজেপি সরকারকে মানুষ যে সমর্থন করছেন তা স্পষ্ট। আর যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ফলাফল নিয়ে আশাবাদী হওয়ার মতো বার্তা দিয়েছেন এই দুই কেন্দ্রের মানুষ। মানুষ আর পরিবারবাদ, জাতপাতের রাজনীতি করা সাম্প্রদায়িক নেতাদের চাইছেন না।

পাঞ্জাবের ফল

পাঞ্জাবে উপনির্বাচনে জিতেছেন কট্টরপন্থি নেতা সিমরনজিৎ সিং মান। তিনি শিরোমনি অকালি দল(এ)র সভাপতি।

কিছুদিন আগে নিহত পাঞ্জাবি গায়ক মুসে ওয়ালার হত্যা এই ফলে প্রভাব ফেলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, সাংরুরের মানুষ, বিশেষ করে যুবকরা মুসে ওয়ালাকে হত্যার ঘটনায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ। রাজনৈতিক বিশ্লেষক মনোহরলাল শর্মা টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে বলেছেন, সম্প্রতি পাঞ্জাবে সহিংসতা অনেকটাই বেড়ে গেছে। গ্যাং ওয়ার চলছে, রাজনৈতিক নেতাদের মারা হচ্ছে। এসবেরই প্রভাব ভোটের ফলে পড়েছে বলে তিনি মনে করেন।

পাঞ্জাবে ঐতিহাসিক জয় কেজরিওয়ালের

বাকি ফল

দিল্লিতে অবশ্য বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে আপ জিতেছে। অন্ধ্রে জিতেছে ওয়াইআরসিপি কংগ্রেস। কংগ্রেস দুইটি বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে জিতেছে। একটি ত্রিপুরায়, অন্যটি ঝাড়খণ্ডে। বিজেপি ত্রিপুরায় দুইটি আসনে জিতেছে। মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা জিতেছেন। ত্রিপুরায় তৃণমূল একটি আসনেও জিততে পারেনি।

জিএইচ/এসজি (পিটিআই)