পাক সিরিয়ালে রবীন্দ্র সংগীত, উচ্ছ্বসিত নেটমাধ্যম | বিশ্ব | DW | 07.06.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

পাক সিরিয়ালে রবীন্দ্র সংগীত, উচ্ছ্বসিত নেটমাধ্যম

পাকিস্তানের সিরিয়ালে রবীন্দ্র সংগীত ব্যবহার হলো। ‘আমার পরান যাহা চায়’। উচ্ছ্বসিত নেটমাধ্যম।

পাকিস্তানের সিরিয়ালে ব্যবহার করা হলো রবীন্দ্রসঙ্গীত।

পাকিস্তানের সিরিয়ালে ব্যবহার করা হলো রবীন্দ্রসঙ্গীত।

সীমানা ছাড়ায় রবীন্দ্র সংগীত। এ আর নতুন কথা কি! কবেই তো তা ভারত ও বাংলাদেশের সীমান্ত ছাড়িয়ে তা ছড়িয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্বে। কিন্তু তাই বলে পাকিস্তানে? যে পাকিস্তান ১৯৬১ সালে রবীন্দ্রকবিতা ও গান নিষিদ্ধ করেছিল। যে সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান এবং এখনকার বাংলাদেশ গর্জে উঠেছিল, পরে মুক্তিসংগ্রামের অন্যতম হাতিয়ার হয়ে উঠেছিল রবীন্দ্রনাথের গান। সময় বদলেছে। সময় বদলের প্রতীক হিসাবে সেই পাকিস্তানের সিরিয়ালে ব্যবহার করা হলো রবীন্দ্র সংগীত, 'আমার পরান যাহা চায়'। আর এই ঘটনার কথা সামনে আসার পরই নেটমাধ্যমে হইচই পড়ে গেছে।

এই ভিডিওটি প্রথম শেয়ার করেছিলেন পাকিস্তানের পরিচালক মেহরিন জব্বার। তিনিই 'দিল কেয়া করে'-র পরিচালক, যেখানে এই রবীন্দ্র সংগীতটি ব্যবহার করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, শর্বরী পান্ডে গানটি গেয়েছেন। আর ধারাবাহিকের প্রধান চরিত্রের নামও দিয়েছেন তিনি। তাঁরা হলেন, ফিরোজ খান, ইয়ামনা জেইদি, মরিয়াম নাফিজ এবং জেইন বেগ। ইনস্টা ও ফেসবুকে তিনি তা শেয়ার করেন।

খুবই উল্লেখযোগ্য হলো, এখানে রবীন্দ্র সংগীতটি বাংলাতেই নেয়া হয়েছে। এরপর তা টুইটার ফেসবুকে ঘুরতে থাকে। শুরু হয়ে যায় আলোচনা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, চারজন চরিত্র সোফায় বসে আছেন। একজন নারী চরিত্র গানটি গাইছেন। অন্যরা মুগ্ধভাবে শুনছেন।

গায়ক রূপঙ্কর বাগচী মনে করেন, যে পাকিস্তানি পরিচালক রবীন্দ্র সংগীত ব্যবহার করেছেন, তিনি খুব স্বাভাবিক কাজ করেছেন। ডয়চে ভেলেকে রূপঙ্কর বলেছেন, ''তাকে আলাদা করে বাহবা দিচ্ছি না। রবীন্দ্রনাথ বাঙালি বা ভারতীয় নন। তিনি গোটা পৃথিবীর। রবীন্দ্রনাথের গান পাকিস্তানের সিরিয়ালে ব্যবহার হওয়াটাই স্বাভাবিক।'' তার মতে, ''পাকিস্তানের সঙ্গে অন্য যে সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হয়, কূটনৈতিক, খেলার বা সামরিক, সেগুলিই অস্বাভাবিক।''

বাংলাভাষার অধ্যাপক আশিস চক্রবর্তী কিন্তু মনে করেন, এটা বিস্ময়কর ব্যাপার। বিশেষ করে ইতিহাস মনে রাখলে। ডয়চে ভেলেকে তিনি বলেছেন, ''পাকিস্তান তার ট্যাবু ভেঙে বেরোচ্ছে। ওরা বাংলায় রবীন্দ্রনাথ ব্যবহার করছে, এটা অবাক করার মতো বিষয়। এনিয়ে অনেক প্রশ্নও মনে জাগছে।'' তবে আশিসের মতে, ''রবীন্দ্রনাথ আমাদের উদার চিন্তা শিখিয়েছেন। কিন্তু ভারত  উদার ধারণাটাকে ভেঙে সঙ্কীর্ণতার দিকে যাচ্ছে। এটাই মনে লাগে।''

জিএইচ/এসজি (আনন্দবাজার, প্রতিদিন)

সংশ্লিষ্ট বিষয়