পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় ১০ সেনার মৃত্যু | বিশ্ব | DW | 28.01.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তান

পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় ১০ সেনার মৃত্যু

দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সন্ত্রাসী হামলায় ১০ সেনার মৃত্যু হয়েছে। একজন আক্রমণকারীও নিহত।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সেনার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বালুচিস্তানের কেচ শহরে এই ঘটনা ঘটে। সন্ত্রাসীরা আক্রমণ করলে সেনাও গুলি চালায়। সেনার গুলিতে একজন সন্ত্রাসী মারা গেছে। বৃহস্পতিবার ভোররাতে এই ঘটনা ঘটে।

কোনো গোষ্ঠী বা ব্যক্তি এই হামলার দায় স্বীকার করেনি।

সেনার তরফ থেকে জনানো হয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনী পরে তিনজন বিচ্ছিন্নতাবাদীকে ধরেছে। পুরো এলাকায় তল্লাশি চলছে।

বালুচিস্তানে দীর্ঘদিন ধরেই বিচ্ছিন্নতাবাদীরা সক্রিয়। তারা পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর উপরই মূলত হামলা করে। এই বিচ্ছিন্নতাবাদীরা বালুচিস্তানের স্বাধীনতা দাবি করে। তারা ইসলামাবাদের অধীনে থাকতে চায় না।

পাকিস্তান অবশ্য দাবি করে, তারা এই বিচ্ছিন্নতাবাদের সমস্যার মোকবিলা করতে পেরেছে।

একদিন আগেই লাহোরে বোমা বিস্ফোরণে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বালুচিস্তান-ভিত্তিক একটি বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী এই আক্রমণের দায় স্বীকার করেছে। তারপরেই সীমান্তে এই হামলা হলো।

সম্প্রতি পাকিস্তান জুড়েই একাধিক হামলার ঘটনা ঘটেছে। এমনকী শহরেও হামলা হচ্ছে। ডন অনলাইন জানিয়েছে, জানুয়ারির প্রথমদিকে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের বান্নু জেলার জানিখেলে সন্ত্রাসী হামলায় একজন সেনা মারা যায়। ৫ জানুয়ারি সেখানেই নিরাপত্তা বাহিনীর দুই পৃথক অভিযানে কয়েকজন সন্ত্রাসী সহ দুই সেনার মৃত্যু হয়।

জিএইচ/এসজি (এপি, ডন)

নির্বাচিত প্রতিবেদন