পাকিস্তানে বিস্ফোরণে তিন চীনা সহ মৃত চার | বিশ্ব | DW | 27.04.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তান

পাকিস্তানে বিস্ফোরণে তিন চীনা সহ মৃত চার

পাকিস্তানে আবার আক্রান্ত চীনের নাগরিকরা। করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিস্ফোরণে তিনজন চীনের নাগরিক সহ চারজনের মৃত্যু।

বিস্ফোরণের পর ভ্যানের অবস্থা।

বিস্ফোরণের পর ভ্যানের অবস্থা।

পাকিস্তানের একটি সন্ত্রাসবাদী সংগঠন এই ঘটনার দায় স্বীকার করে বলেছে, তারা বিশেষ করে চীনের নাগরিকদের টার্গেট করেছিল। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, একজন নারী এই বিস্ফোরণের পিছনে আছেন।

স্থানীয় পুলিশপ্রধান জানিয়েছেন, আক্রমণকারীরা একটি ভ্যানকে টার্গেট করে। সেখানে করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফুশিয়াস ইনস্টিটিউটের চীনা ভাষার প্রশিক্ষকরা ছিলেন। সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মৃতদের মধ্যে দুইজন চীনা নারী ও একজন পুরুষ। এছাড়া পাকিস্তানি ড্রাইভারও মারা গেছেন। বিস্ফোরণে চারজন আহত হয়েছেন।

সন্ত্রাসবাদী সংগঠন বালোচিস্তান লিবারেশন আর্মি(বিএলএ) এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। তারা জানিয়েছে, চীনাদের লক্ষ্য করেই আক্রমণ চালানো হয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ এই ঘটনার নিন্দা করে বলেছেন, ''আমাদের চীনা বন্ধুদের মূল্যবান জীবন চলে গেছে। আমি শোকার্ত। এই আক্রমণের পিছনে যারা আছে তাদের কঠিন শাস্তি দেয়া হবে।''

বিস্ফোরণের পর ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা নমুনা সংগ্রহ করছেন।

বিস্ফোরণের পর ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা নমুনা সংগ্রহ করছেন।

চীনা বিনিয়োগের বিরুদ্ধে

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, বোরখা পরিহিতা এক নারী ইনস্টিটিউটের গেটের কাছে এগিয়ে যাচ্ছেন। ভ্যানটি তখন আসছিল। তারপরেই স্থানীয় সময় দুইটা নাগাদ বিস্ফোরণ হয়।

ইনস্টিটিউটের ডিরেক্টর হুয়াং গুইপিং, শিক্ষক ডিং মুপেং, চেন সাই এবং পাকিস্তানি চালক খালিদ মারা গেছেন।

চীনাদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানে এই নিয়ে দুইটি বড় ধরনের আক্রমণ হলো। এর আগে উত্তর পাকিস্তানে রাস্তার ধারে রাখা বোমা ফেটে নয়জন চীনা মারা যান। তারা বাসে করে যাচ্ছিলেন।

বিএলএ সহ বেশ কয়েকটি বিচ্ছিন্নবাদী গোষ্ঠী পাকিস্তানে চীনা বিনিয়োগের বিরোধী। বালোচ সংগঠনগুলি দাবি করেছে, এলাকার মানুষের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে পাকিস্তান সরকার প্রাকৃতিক সম্পদ তোলার কাজ চীনা সংস্থাকে দিয়ে দিচ্ছে। বেজিং এখানে রাস্তা বানাচ্ছে, গভীর সমুদ্র বন্দর করছে। পাকিস্তান সরকার চীনের সাম্রাজ্যবাদী মানসিকতা চরিতার্থ করছে বলে তাদের অভিযোগ।

Pakistan Explosion Gelände einer Universität in Karachi

বিস্ফোরণের পরের ছবি।

শাহবাজের প্রতিশ্রুতি

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ জানিয়েছেন, পাকিস্তানে চীনা ও অন্য বিদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন। এজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন।

শাহবাজ জানিয়েছেন, অ্যামেরিকার সঙ্গে শত্রুতা করে পাকিস্তান চলতে পারে না। আগের সরকার ভুল নীতি নিয়েছিল।

জিএইচ/এসজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, দ্য ডন)