পাঁচজন প্রখ্যাত আঁকিয়ে-বাজিয়ে | বিশ্ব | DW | 22.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

পাঁচজন প্রখ্যাত আঁকিয়ে-বাজিয়ে

ইউরোপের এমন পাঁচজন প্রখ্যাত রক সংগীতশিল্পীর নাম করুন দেখি, যাঁদের সবাই জীবিত আর প্রত্যেকেই ছবি আঁকেন? পাঁচজনের একজন তো বলেন, তিনি আসলে পেশায় চিত্রশিল্পী, যদিও গিটার বাজিয়ে খান৷

default

রন উড ও তাঁর অংকনশিল্পী

পাঁচজন ইউরোপীয় সংগীতশিল্পী; এরা যে ছবিও আঁকেন, তা হয়ত আপনার জানাই ছিল না৷

উডোলিন্ডেনব্যার্গ

আঁকড়ি-বুকড়ি দিয়েই আঁকার শুরু৷ এই সংগীতশিল্পী তার ফ্যানদের অটোগ্রাফ দিতে গিয়ে প্রথম আঁকতে শুরু করেন; পরে তা সত্যিকারের শিল্পকলা হয়ে দাঁড়ায়৷ ছবি দেখলেই বোঝা যাবে, এ শিল্পী জার্মান রক গায়ক উডো লিন্ডেনব্যার্গ ছাড়া আর কেউ হতেই পারেন না৷

১৯৯৫ সাল যাবৎ লিন্ডেনব্যার্গকে বহুবার চিত্রকরের ভূমিকায় দেখা গেছে৷ আয়ারলিক্যর বা ব্লু কুরাসাও কিংবা হুইস্কির মতো পানীয় দিয়ে ছবি এঁকে থাকেন লিন্ডেনব্যার্গ, সঙ্গে পানও চলে! এই না হলে রকস্টার৷

ভিডিও দেখুন 03:38
এখন লাইভ
03:38 মিনিট

পাঁচ ইউরোপীয় সংগীতশিল্পী, যাঁরা ছবিও আঁকেন

রন উড

সংগীত জগতের বিরাট বড় বড় তারকাদের প্রতিকৃতি: অ্যাক্রিলিক রং দিয়ে স্ল্যাশ-এর ছবি; কিংবা প্যাস্টেল রং দিয়ে জিমি হেনড্রিক্স-এর ছবি৷ যিনি এঁকেছেন, পপ সংগীতের জগতে তিনি নিজেও কিছু কম যান না: তিনি হলেন রোলিং স্টোন গোষ্ঠীর গিটারবাদক রন উড৷ রন উডের বক্তব্য হল, তিনি আসলে একজন চিত্রশিল্পী, যিনি একটু-আধটু বাজিয়েও থাকেন৷ গানবাজনার ক্যারিয়ার শুরু করার আগে তিনি লন্ডনের একটি আর্ট স্কুলে আঁকা শিখেছিলেন – আর সেযাবৎ আঁকা ছাড়েননি৷

রন উড ইতিমধ্যে ইউরোপ, অ্যামেরিকা ও এশিয়ায় চিত্রপ্রদর্শনী করেছেন৷ তাঁর একটি ছবির দাম আট লাখ ইউরো অবধি উঠতে পারে; শুধু আর্ট প্রিন্টগুলোই বিক্রি হয় হাজার হাজার ইউরো মূল্যে৷

পল ম্যাককার্টনি

পল ম্যাককার্টনি হলেন আদতে বিটল৷ ১১ বছর বয়সে ম্যাককার্টনি নাকি স্কুলের একটি অঙ্কন প্রতিযোগিতায় পুরস্কার লাভ করেছিলেন৷ তবে তাঁর হালের চিত্রকর্মের সমালোচক কিছু কম নয়: ম্যাককার্টনি নাকি আবোল-তাবোল, সস্তার সেন্টিমেন্টের ছবি এঁকে থাকেন, বলে তাদের অভিযোগ৷

রিঙ্গোস্টার

বিটলস গোষ্ঠীর সাবেক ড্রামার রিঙ্গো স্টারের আঁকায় ছবিতে বিশেষ আবেগের স্পর্শ খুঁজে পাওয়া যাবে না৷ তিনি কীভাবে আঁকা শুরু করলেন, সে বিষয়ে রিঙ্গো একবার বলেছিলেন: তিনি নাকি হোটেলের ঘরে বসে বোর হচ্ছিলেন, তাই কম্পিউটারের গ্রাফিক প্রোগ্রাম নিয়ে খেলতে শুরু করেন৷ সেই থেকেই তাঁর আঁকার সূচনা৷ তবে রিঙ্গো নিজের অঙ্কনশিল্পকে বিশেষ গুরুত্ব দেন না – যদিও ছবিগুলো ভালোই বিক্রি হয়৷

বোনো

পিটার ও নেকড়ের গল্প শুধু সের্গেই প্রোকোফিয়েভ-এর সিমফনিতেই নয়; আইরিশ সংগীতশিল্পী গ্যাভিন ফ্রাইডে তা সিডি ও বই হিসেবে বার করেছেন৷ বইটির অলঙ্করণ করেন গ্যাভিনের ছেলেবেলার বন্ধু, ইউটু সংগীত গোষ্ঠীর গায়ক বোনো৷ বোনো তাঁর দুই কন্যা জর্ডান আর ইভ-এর সাহায্য নিয়ে গ্যাভিনের বইটির জন্য ছবি আঁকেন৷ ২০০৩ সালে সেই আদত ছবিগুলি নিলামে তিন লাখ ইউরোর বেশি দাম পায়, যার সবটাই যায় দাতব্যে৷

আন্টিয়ে বিন্ডার/এসি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন