পর্তুগালে বাস দুর্ঘটনায় ২৯ জনের মৃত্যু | বিশ্ব | DW | 18.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পর্তুগাল

পর্তুগালে বাস দুর্ঘটনায় ২৯ জনের মৃত্যু

পর্তুগালে পর্যটক বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় ২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, যাদের বেশিরভাগ জার্মান নাগরিক৷ আহতরা স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন৷

পর্তুগালের অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ মাদেইরা দ্বীপে বুধবার একটি বাস দুর্ঘটনায় ২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ, যাদের মধ্যে বেশিরভাগই ছিলেন জার্মান নাগরিক৷

বাসটিতে মোট ৫৫ জন যাত্রী ছিলেন৷ ক্যানিকো নামের একটি জায়গায় গতি হারিয়ে বাসটি খাড়া পাহাড় থেকে নীচে গড়িয়ে পড়ে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় মেয়র ফিলিপে সুজা৷ এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, দুর্ঘটনায় ২৮ জন যাত্রী মারা গেছেন এবং ২২ জন আহত হয়েছেন৷ বাসের সব পর্যটকই জার্মানির নাগরিক ছিলেন৷ তবে কিছু পথচারীও এসময় আহত হয়েছেন বলে যোগ করেন সুজা৷

হাসপাতালে নেয়ার পর আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে বলেও পরবর্তীতে নিশ্চিত করেন তিনি৷ বাসটির মালিক এসএএম নামের একটি পরিবহন প্রতিষ্ঠান৷ দুর্ঘটনার কারণ জানতে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সাথে তারা কাজ করবে বলে জানিয়েছে৷

‘‘দুর্ঘটনার পেছনে সমস্ত তথ্য, কারণ ও দায় সম্পর্কে জানতে এবং তদন্ত করার বিষয়ে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ,'' বিবৃতিতে বলেছে এসএএম৷

এদিকে দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে জার্মানির নাগরিক রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী৷  এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘‘মাদেরার বাস দুর্ঘটনার খবরে আমরা শোকাহত৷ দুর্ভাগ্যজনকভাবে হতাহতদের মধ্যে জার্মান নাগরিকরা রয়েছেন৷ তাঁদের পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাচ্ছি৷''

৪ টি দ্বীপ নিয়ে মাদেইরা দ্বীপপুঞ্জটি মরক্কো উপকূল থেকে ৯৩৫ কিলোমিটার দুরুত্বে অবস্থিত৷ এটি পর্তুগালের দুটি স্বায়ত্ত্বশাসিত অঞ্চলের একটি৷ প্রতি বছর কয়েক লাখ পর্যটকের পা পড়ে সেখানে৷

এফএস/এসিবি (এএফপি, এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন