পরিবেশ সুরক্ষা শেখানো হচ্ছে সবুজ স্কুলে | অন্বেষণ | DW | 23.08.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

পরিবেশ সুরক্ষা শেখানো হচ্ছে সবুজ স্কুলে

ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে রয়েছে একটি সবুজ স্কুল৷ উবুদ শহরের দক্ষিণে এই বাঁশঝাড়ের স্বর্গের অবস্থান৷ এখানে কোনো পাকা স্কুল ভবন নেই৷ বরং আট হেক্টর এলাকা জুড়ে তৈরি ক্যাম্পাসে বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে ক্লাসঘর৷

সবুজ স্কুলে কিছু বিষয় ক্লাসরুমের বাইরেই শেখানো হয়৷ যেমন ‘সবুজ গবেষণা'৷ এই বিষয়ে শিক্ষক নিয়ন ফেসনক্স বলেন, ‘‘আমি আজ সকালে একজন খদ্দেরের ভূমিকায় রয়েছি, যার পুকুরটি পরিষ্কার করতে হবে৷ আমি শিক্ষার্থীদের কিছু নির্দেশ দিয়েছি৷ আমরা গত দুই সপ্তাহ ধরে একটি পুকুর নিয়ে গবেষণা করছি৷ এবং আমরা জানতে পেরেছি, বের হওয়ার কোন পথ না পেলে এখানে ব্যাঙগুলি মারা যাবে৷''

Bali Grüne Schule

প্রথাগত শিক্ষার বাইরে হাতেনাতে শিক্ষা

পরিবেশগত বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও সবুজ স্কুলে গণিত, ব্যাকরণ, দর্শন কিংবা পদার্থবিদ্যার মতো সাধারণ বিষয়ও পড়ানো হয়৷ প্রায় চল্লিশটি দেশ থেকে শিক্ষার্থীরা এখানে পড়ে৷ পাঠ্যক্রমও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত৷ আর পড়ানোর ধরনও বেশ ভিন্ন৷ যেমন কখনো ইসরায়েলি লোকনৃত্য দিয়ে শুরু হয় গণিত ক্লাস৷ গণিত শিক্ষক শন ম্যাকগুর্গান এই বিষয়ে বলেন, ‘‘এই লোকনৃত্যের মাধ্যমে আমি অনেক রকম শারীরিক কসরত শেখাতে পারি৷ সামনে আগানো, পেছনে যাওয়া, ভারসাম্য রক্ষা, ডানে ঘোরা, বামে ফেরা – মানবদেহের চমৎকার সব ক্ষমতা রয়েছে৷ আর এটাই হচ্ছে টেকসই শিক্ষা৷ এই শিক্ষা জীবনের জন্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নয়৷''

শিক্ষার্থীদের খাবারের আয়োজনও করা হয় স্কুলে৷ দুপুরের খাবারে তারা সাধারণত বালির কিছু জনপ্রিয় খাবার, ইটালীয় পাস্তা এবং বাগানের টাটকা টমেটো খায়৷ বেতের তৈরি পাত্রের ভেতর কলাপাতা বিছিয়ে তাদের খাবার দেওয়া হয়৷ এগুলো ধোয়ার প্রয়োজন হয়না৷ ফলে পানি সাশ্রয় হয়৷

সবুজ স্কুলে বার্ষিক টিউশন ফি দশ হাজার ইউরো৷ বালিবাসীদের পক্ষে এই খরচ বহন করা সম্ভব নয়৷ ফলে স্কুলটি মূলত বিত্তশালী বিদেশিদের শিশুদের উপর নির্ভরশীল৷ তারা হয়তো এক সময়ে দেশে ফিরে বাকিদের পরিবেশ সচেতনতায় উৎসাহ দিতে পারবে৷

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন