পরিবেশ রক্ষায় অবদানের জন্য পুরস্কার | বিশ্ব | DW | 29.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পরিবেশ রক্ষায় অবদানের জন্য পুরস্কার

মিশিগানের এক পরিবেশ কর্মীসহ সাতজন এ বছরের পরিবেশ পুরস্কার পাচ্ছেন৷ তৃণমুল পর্যায়ে পরিবেশ নিয়ে কাজ করার জন্য এই সাত পরিবেশ কর্মী পেতে যাচ্ছেন গোল্ডম্যান পরিবেশ পুরস্কার৷

অন্যান্যদের চেয়ে মিশিগানের ফ্লিন্টের অধিবাসী লি অ্যানে ওয়াল্টারের ভূমিকা এক্ষেত্রে অনন্য৷ ২০১৫ সালে তিনি যখন রান্নাঘরে ট্যাপেরপানিবোতলে ভরছিলেন, তখন সেটার রং ছিল বাদামি, যা তার কাছে স্বাভাবিক মনে হয়নি৷ তিনি বার বার প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেও কোন ফল পাচ্ছিলেন না৷ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ জানান তিনি৷ অবশেষে ভার্জিনিয়ার একটি প্রযুক্তি গবেষক দল এবং স্থানীয় এক চিকিৎসক তাঁর ডাকে সাড়া দেন৷ তাঁরা ঐ পানি পরীক্ষা করে দেখতে পান যে পানিতে বিষাক্ত সীসা রয়েছে৷

এ বছরের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে সোমবার গোল্ডম্যান এনভার্নমেন্টাল ফাউন্ডেশন জানায়, ‘‘ওয়াল্টার সেখানকার পানিতে কী সমস্যা হয়েছে, সেটা জানতে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন, সেটা কেবল তাঁর নিজের পরিবারের জন্য নয়৷ ফ্লিন্টের সব অধিবাসীদের জন্য লড়াই করে গেছেন তিনি৷''

১৯৮৯ সালে সান ফ্রান্সিস্কোর ফিল্যান্থ্রোপিস্টস রিচার্ড এবং রোডা গোল্ডম্যান এই পুরস্কার চালু করেন৷ বিভিন্ন পরিবেশ সংগঠনের মনোনয়ন থেকে বিজয়ীদের বেছে নেয়া হয়৷ পুরস্কারের মূল্য ২ লাখ মার্কিন ডলার৷

ওয়াল্টার এখন ভার্জিনিয়াতে থাকেন৷ কিন্তু ফ্লিন্টে প্রায়ই যান৷ ২০১৫ সালে তাঁর অভিযোগ সত্য প্রমাণ হওয়ার পর সেখানকার লাখো পানির পাইপ লাইন বদলে ফেলা হয়৷ তার আগে পরীক্ষা করা হয় পাইপের মাধ্যমে কোন সীসা পানির সঙ্গে মিশ্রিত হচ্ছে কিনা৷

ওয়াল্টার ছাড়া অন্যান্য বিজয়ীরা হলেন কলোম্বিয়ার ফ্রান্সিয়া মার্কুয়েজ৷ যিনি কোকা এলাকায় সোনার খনি বন্ধের দাবিতে এলাকার নারীদের উদ্বুদ্ধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছিলেন৷ আছেন ফ্রান্সের ক্লেয়ার ন্যুভা, যিনি গভীর সমুদ্রে জাল দিয়ে মাছ ধরার বিরুদ্ধে সফল প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন৷ বিজয়ী হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার লিজ ম্যাকডেইড এবং মাকোমা লেকালাকালা, যারা তাদের দেশ ও রাশিয়ার মধ্যে পারমাণবিক চুল্লি স্থাপনের বিষয়ে চুক্তি বন্ধে লড়াই করে যাচ্ছেন৷ ফিলিপাইন্সের ম্যানি কালোনসো, যিনি সীসা পেইন্ট নিষিদ্ধ করার দাবিতে  কাজ করছেন৷ আর একজন বিজয়ী হলেন, ভিয়েতনামের খান গুই থি, যিনি কয়লা জ্বালানির উপর নির্ভরশীলতা কমাতে বৈজ্ঞানিক গবেষণা করছেন৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

বন্ধু, আপনিও কি পরিবেশ রক্ষায় অবদান রাখতে চান? কী করতে চান জানান আমাদের নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও