পরিত্যক্ত খনি যখন জ্বালানির উৎস | অন্বেষণ | DW | 23.08.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

পরিত্যক্ত খনি যখন জ্বালানির উৎস

প্রাকৃতিক সম্পদ ফুরিয়ে গেলে খনি আর কাজে লাগে না৷ কিন্তু পরিত্যক্ত কয়লাখনিকে টেকসই জ্বালানির উৎস হিসেবে ব্যবহার করার অভিনব প্রক্রিয়া চলছে জার্মানিতে৷ এক মডেল প্রকল্প সফল হলে গরম পানি পাওয়া যাবে এই সব খনি থেকে৷

ভিডিও দেখুন 02:26
এখন লাইভ
02:26 মিনিট

খনি থেকে গরম পানি

আগে ছিল কয়লাখনি৷ এখন এক বিদ্যুৎ কোম্পানি পরিত্যক্ত এই খনির সুড়ঙ্গ থেকে গরম পানি তোলে৷ খনি বন্ধ হওয়ার প্রায় ৪০ বছর পর সেই জায়গা যে আবার কাজে লাগানো যাচ্ছে, তাতে কোম্পানির মুখপাত্র অত্যন্ত খুশি৷ প্রায় ৬০০ মিটার গভীরে পানি জমে গরম হয়ে উঠেছে৷ ধস এড়াতে সেই পানি এমনিতেই পাম্প করে উপরে তুলতে হতো৷ সব পরিত্যক্ত খনিরই একই অবস্থা৷ আগামী কয়েক বছরে সে সব জায়গায় বিভিন্ন কোম্পানি জ্বালানির উৎস হিসেবে গরম পানি কাজে লাগাতে চায়৷ রোয়রকোলে কোম্পানির রিকার্ডা ড্যুগা বলেন, ‘‘এই প্রকল্পকে মডেল হিসেবে ধরে বাকি খনিগুলিতেও গরম পানি কাজে লাগানো যেতে পারে৷ কোম্পানির পক্ষ থেকে আমরা উত্তাপ সহ খনিগুলির সম্ভাবনা কাজে লাগাতে চাই৷''

কোম্পানি অবশ্যই ভূস্তরের নীচের উত্তাপ কাজে লাগাচ্ছে৷ খনির কাছের এক স্কুলের প্রধান এমন এক প্লান্ট বসিয়েছেন, যা দিয়ে শীতে গোটা স্কুলবাড়ি ও সুইমিং পুল গরম রাখা যায়৷ তখন থেকেই প্লান্টে পানি আসছে৷ মাথায় এই আইডিয়া আসার মাস ছয়েকের মধ্যেই প্লান্ট প্রস্তুত হয়ে গিয়েছিল৷

এই স্কুল ছাড়াও আরও অনেকে আগ্রহ দেখাচ্ছে৷ যেমন ছোট এই কারখানাও পরিত্যক্ত খনি থেকে গরম পানি পেতে চায়৷ পাশ দিয়েই পাইপ চলে গেছে৷ কারখানার প্রধান বহু বছর ধরেই সেই পাইপে ভাগ বসাতে চাইছেন৷ গরম পানি যে আর কাছের এক হ্রদে ফেলে দেওয়া হচ্ছে না, তাতেই তিনি খুশি৷ এখন তিনি সেই পানি পাবার আশা করছেন৷ শিল্পপতি হান্স পেটার কানিস বলেন, ‘‘প্রচলিত পদ্ধতিতে গ্যাস থেকে যে উত্তাপ পাওয়া যায়, সেই তুলনায় এর খরচ অবশ্যই অত্যন্ত কম৷ তাছাড়া পরিবেশ সংরক্ষণের ক্ষেত্রেও এটা একটা অবদান বটে৷ বছরের পর বছর ধরে তো এই জ্বালানি নষ্ট হচ্ছে৷''

অদূর ভবিষ্যতেই তাঁর আশা পূর্ণ হবে৷ আবেদনপত্র জমা পড়েছে৷ লাইনের সংযোগও সহজ প্রক্রিয়া৷ আগামী বছরগুলিতে টেকসই জ্বালানির উৎস হিসেবে একে একে পরিত্যক্ত খনিগুলির নবজন্ম ঘটবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

বিশেষ ঘোষণা: এই সপ্তাহের অন্বেষণ কুইজে অংশ নিতে ক্লিক করুন এখানে

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়