পথশিশুদের সহায়তায় ‘সেল্ফি’ ইভেন্ট | বিশ্ব | DW | 04.07.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পথশিশুদের সহায়তায় ‘সেল্ফি’ ইভেন্ট

বাংলাদেশের পথশিশুদের সহায়তা শুরু হয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকের এক ফেসবুক ইভেন্ট৷ এতে পথশিশুদের সঙ্গে নিজেদের ছবি নিজেরা তোলা বা সেল্ফি তোলার আহ্বান জানানো হচ্ছে৷ তবে তার আগে শিশুটিকে নতুন জামা দিতে হবে৷

ফেসবুক ইভেন্টের শিরোনাম, ‘‘ব্রিং স্মাইল টু ওয়ান স্ট্রিট চাইল্ড ইন দিস ঈদ৷'' ৪ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই অবধি বিস্তৃত এই ইভেন্টে ইতোমধ্যে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন ৩৯৭ জন৷ এই সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে৷

ইভেন্টের পাতায় লেখা হয়েছে, ‘‘নাহ, আমরা বিকাশ একাউন্টে টাকা চাচ্ছি না৷ একটা সেল্ফি, হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন একটা সেল্ফি৷ আপনার দেয়া নতুন জামা পরা একটি পথশিশুর সেল্ফি পোস্ট করুন এই ইভেন্টে৷

‘‘হয়ত আপনার মতো আরেকজন এগিয়ে আসবে, আমরা দেখবো অনেক গুলো হাসি, কি পারবেন? নাহলে আসুন মুড়ি খাই৷''

ইভেন্ট পাতায় প্রথম সেল্ফিটি সম্ভবত পোস্ট করেছেন নিরব খান৷ এক পথশিশুর সঙ্গে তোলা সেলফির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘‘ছিন্নমূল শিশুদের নিয়ে আমিও চেষ্টা করছি৷ আর এসএ টিভিতে প্রতিদিন বিকেল পাঁচটা বিশ মিনিটে উদ্যোগটা দেখানো হয়৷''

সেল্ফি তোলার ব্যতিক্রমী এই ইভেন্ট ফেসবুকে শেয়ার করছেন অনেকে৷ এদেরই একজন জিনাত জোয়ার্দার রিপা৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘একটা ইভেন্টের মূল ভাষা পড়ে শেয়ার না দিয়ে পারা গেল না৷''

এদিকে, পথশিশুদের সহায়তায় আমার ব্লগে আরেক উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন শিমুল জিতু৷ তাঁর লেখার শিরোনাম, ‘‘সাহায্য চাই এক চিলতে হাসির জন্যে৷''

জিতু লিখেছেন, ‘‘কাজটা আমরা করতে চাই আমার এলাকায়, অর্থাৎ নোয়াখালীর প্রধান শহর মাইজদীতে৷ প্রায় ১০০ শিশুর হাতে আমরা নতুন জামা তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি৷''

তিনি লিখেছেন, ‘‘আসুন আমরা শুরু করি৷ একটি সামাজিক আন্দোলন তৈরি করি দরিদ্রতার বিরুদ্ধে, অনিয়মের বিরুদ্ধে৷ আমাদের কাউকে তো শুরু করতে হবে৷ এই ধরুন আমার দিক থেকে আমি করলাম৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন