1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ন্যান্সি পেলোসি ও হু শিজিনের বিয়ের ভুয়া ছবি

ন্যান্সি পেলোসি ও হু শিজিনের বিয়ের ভুয়া ছবি

৪ আগস্ট ২০২২

পুরনো একটি বিয়ের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়৷ দাবি করা হচ্ছে সেটি যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি ও চীনা সাংবাদিক হু শিজিনের৷ কিন্তু ছবিটি আসলে ভুয়া৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%BF-%E0%A6%AA%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%8B%E0%A6%B8%E0%A6%BF-%E0%A6%93-%E0%A6%B9%E0%A7%81-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AD%E0%A7%81%E0%A7%9F%E0%A6%BE-%E0%A6%9B%E0%A6%AC%E0%A6%BF/a-62710692

যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান ভ্রমণে গোটা বিশ্বের রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক অঙ্গন নড়েচড়ে উঠেছে৷ চীন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক এবং তাইওয়ান ঘিরে উত্তেজনা নিয়ে চলছে বিস্তর আলোচনা৷ এর মধ্যে ছড়াচ্ছে নানা ভুয়া খবরও৷ তেমনই একটি ন্যান্সি পেলোসি ও চীনের গ্লোবাল টাইম সংবাদপত্রের সাবেক প্রধান সম্পাদকের বিয়ের ভুয়া ছবি৷ টুইটারে ছবিটি দিয়ে একজন লিখেছেন, ‘‘যখন তারা তরুণ ছিলেন: ন্যান্সি পেলোসি এবং হু শিজিন৷''

সত্যতা যাচাই

ডয়চে ভেলের সত্যতা যাচাই অনুসন্ধানে দেখা গেছে পুরনো দুইটি ছবিকে জোড়া দিয়ে এই ছবিটি তৈরি করা৷ মূল ছবির একটিতে ন্যান্সি পেলোসি বসে আছেন তার পরিবারের সঙ্গে৷ অন্যদের সঙ্গে সেই ছবিতে ছিলেন তার বাবা রাজনীতিবিদ থমাস ডি' আলেসান্দ্রো জুনিয়রও৷ পেলোসি এই ছবি পোস্ট করেছিলে ফ্লিকারে৷ ক্যাপশনে লেখা আছে, ‘‘তরুণ বয়সে পরিবারের সঙ্গে''৷ তার একটি প্রাচারমূলক পেইজেও এই ছবিটি রয়েছে৷

হু শিজিনকে পাওয়া যায় ভিন্ন আরেকটি ছবিতে৷ গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চে এই সাংবাদিকের নিজের একটি টুইট মিলে৷ যেখানে তিনি চীনের সামরিক বাহিনীতে থাকার সময়ের স্মৃতিচারণ করেছেন৷ সেই টুইটে সাংবাদিকের এই ছবিটিও রয়েছে, যা পেলোসির সঙ্গে জুড়ে দেয়া হয়েছে৷

ELA Analyse von Fakebild Pelosi und Hu
ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা ছবির ত্রুটি স্পষ্ট করে দিয়েছেনছবি: Forensically

পেলোসি ও শিজিনের বয়সের পার্থক্য

ফরেনসিক ইমেজ বিশ্লেষণেও ছবির দুই অংশে রংয়ের ভিন্নতা পাওয়া যায়, যা প্রমাণ করে দুইজন আসলে এক ছবিতে ছিলেন না৷

পেলোসি ও শিজিনের বয়সের তফাতও প্রমাণ করে যে ছবিটি ভুয়া৷ মার্কিন রাজনীতিবিদের বয়স ৮২ বছর৷ হু শিজিন তার চেয়ে ২০ বছরের ছোট৷

পেলোসির ছবিটি ১৯৬০ সালের৷ পরিবর্তিত ছবইতে দুইজনকে একই বয়সি দেখা যাচ্ছে৷ কিন্তু ১৯৬০ সালে শিজিন কেবল জন্ম নিয়েছেন৷

ছবিটি যে ভুয়া ইন্টারনেট দুনিয়ায় তা অনেকেই বুঝতে পেরেছেন৷ অনেকে এটিকে স্যাটায়ার হিসেবে দেখছেন৷ কিন্তু অনেকেই আবার ভাবছেন তাদের বিয়ের তথ্যটি সত্যি৷

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কৌতুক

হু শিজিন ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের কড়া সমালোচকদের একজন৷ এজন্য চীনের জবাবে সামরিক জবাব দেয়ার পক্ষে তিনি৷ তার মতে এটিই যুক্তরাষ্ট্র ও তাইওয়ানকে বোঝানোর একমাত্র উপায়৷ এ নিয়ে তিনি লিখেছেন চীনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম উইবোতে৷ অন্যদিকে টুইটারে তিনি লিখেছেন চীনের পিপল'স লিবারেশন আর্মির উচিৎ পেলোসির বিমান তাইওয়ানে আসার পথে ‘গুলি করে' ভূপাতিত করা৷ এরইধ্যে টুইটার তাকে সাময়িক ব্লক করেছে৷ শিজিন তার টুইট পরে মুছে ফেলেছেন৷

এমন বাস্তবতায় পেলোসি ও শিজিনের বিয়ের ভুয়া ছবিকে সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীদের অনেকে কৌতুক হিসেবেই দেখছেন৷

ইয়োশা ভেবার, রেচেল বেইগ/এফএস

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মিয়ানমারে ফেরার কথা বললেই বিপদ!

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান