নেফারতিতিকে ফিরে পেতে চাইছে মিশর | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 25.01.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নেফারতিতিকে ফিরে পেতে চাইছে মিশর

জার্মানিকে নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি ফিরিয়ে দিতে বলেছে মিশর৷ মিশরের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সোমবার এইকথা বলেছে৷ প্রায় ৩,৩০০ বছরের পুরানো রানি নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি নিয়ে এই দুই দেশের মধ্যে চলে আসছে বিতর্ক৷

Bust, Nofretete, Museum, Berlin, Aegypten, Aegyptischen, Museum, Germany, নেফারতিতি, আবক্ষ, মূর্তি, মিশর,

নেফারতিতির এই আবক্ষ মূর্তি ফেরত চাইছে মিশর

‘দ্য সুপ্রিম কাউন্সিল অফ এন্টিকুইটিস' নামে আইনজীবী এবং মিশরবিদদের সমন্বয়ে গঠিত একটি কমিটির চার বছরের গবেষণার পরিপ্রেক্ষিতে জার্মানিকে এই অনুরোধ করেছে মিশর৷ এই কাউন্সিলের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘মিশর বিশ্বাস করে, নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি মিশরকে ফিরিয়ে দিতে জার্মান কর্তৃপক্ষ সহযোগিতা করবে৷ ''

মিশরের রাজা আখেনাতেনের স্ত্রী ছিলেন নেফারতিতি৷ নেফারতিতির চুনা পাথরের সেই আবক্ষ মূর্তিটি বর্তমানে রয়েছে বার্লিনের নয়েস বা নতুন মিউজিয়ামে৷ যা দেখতে প্রতিবছর হাজার হাজার দর্শক এই জাদুঘরটিতে আসেন৷ জার্মান মিশরবিদ লুডভিগ বোরশার্ড এবং তাঁর দল ১৯১২ সালে মিশরের নীল নদের তীরবর্তী টেল আল আমার্না খননের সময় এই মূর্তিটি আবিষ্কার করেছিলেন৷ সেইসময় এই খনন কাজে অংশ নেওয়ার কারণে ভাগ বাঁটোয়ারায় মিশর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকেই জার্মানি পেয়েছিলো এই মূর্তিটি৷

জার্মান কর্তৃপক্ষ বলছে, ১৯১৩ সালে আইনসঙ্গতভাবেই জার্মানি এটি কিনে নিয়েছিলো৷ তারা এটাও বলছে, মূর্তিটি এতটাই নাজুক যে, একে এদিক সেদিক করলে এখন সেটি ভেঙে যেতে পারে৷

এন্টিকুইটিস কাউন্সিল বলছে, প্রত্নতাত্ত্বিক শিল্পকর্ম অবৈধভাবে মিশরের বাইরে চলে যাওয়ায় তা ফিরে পাওয়ার নীতির মধ্য দিয়েই জার্মানিকে এই অনুরোধ করেছে মিশর৷

এন্টিকুইটিস এর প্রধান জাহি হাওয়াস বলছেন, নেফারতিতির মূতির্টি ফিরে পাওয়ার পর তা প্রদর্শন করা হবে মিশরের মিনিয়া জাদুঘরে৷ ২০১২ সালের শুরুতেই মিশরের মিনিয়াতে এই জাদুঘরটি খোলা হচ্ছে৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

বিজ্ঞাপন