নেচে হৈচৈ, রেকর্ড, কপাল খুলল কঙ্গনার | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 12.02.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নেচে হৈচৈ, রেকর্ড, কপাল খুলল কঙ্গনার

ফিলিমের নাচের জগতে একেবারে ধুন্ধুমার ফেলে দিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত আর মিকা সিং৷ ছবিতে একটা গানের দৃশ্যের জন্য বরাদ্দ সময়ের পাঁচভাগের একভাগেই শ্যুটিং খতম! এরপর কঙ্গনাকে আর পায় কে?

default

নাচ ছাড়া বলিউড যেন ‘পানি বিনা মছলি’

বলিউডের সেই মারমার কাটকাট ছবি গ্যাংস্টার মনে আছে? যে কোঁকড়া চুলের দীর্ঘাঙ্গী ইউরোপীয় চেহারার মেয়েটি সে ছবির একমাত্র হিস্টিরিক নায়িকা, সেই হল কঙ্গনা রানাওয়াত৷ জেমসের কণ্ঠে একটা গান ছিল ছবিটায়৷ ভিগি ভিগি রাতেঁ...৷

তো, এই কঙ্গনাই মিকা সিং নামের এক উঠতি নায়িকার সঙ্গে ‘তানু ওয়েডস মানু' নামের একটা পাঞ্জাবি ছবির গানের দৃশ্য শ্যুট করছিলেন৷ সেখানে একটা নাচে ভরপুর গানের চার মিনিটের দৃশ্য তুলতে সচরাচর সময় লাগে পরপর পাঁচটা দিন, সেখানে কঙ্গনা আর মিকা কি যেন একটা বোঝাপড়া ঘটিয়ে সেরেফ ৫৬ মিনিটে নামিয়ে দিয়েছেন সেই গোটা গানখানা! একেবারে নাচফাচ সমেত! গোটা ইউনিট হতভম্ব৷

কী করে হল, ব্যাপারটা? কঙ্গনার হয়ে নাচের নির্দেশিকা ফারহা খান বলেছেন, দুটো মেয়ের পায়ের কাজে জাদু আছে৷ আর তেমনই তালমিল৷ দৃশ্যগুলো টপাটপ হয়ে গেল৷

রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত৷ এত তাড়াতাড়ি যদি নাচের স্টেপিং মেলানো দৃশ্যের শ্যুট হয়ে যায়, তাহল ছবির প্রযোজকরা আর অন্য কোন নায়িকার দিকে ফিরেও তাকাবেন না৷

তাহলে কি কঙ্গনার কপাল খুলল?

প্রতিবেদন : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়