নির্বাচন ৩০ ডিসেম্বর | বিশ্ব | DW | 12.11.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

নির্বাচন ৩০ ডিসেম্বর

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টসহ বিভিন্ন জোটের দাবির পর ভোট এক সপ্তাহ পিছিয়ে দিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল পুনঃনির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন৷

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, ‘‘আমরা তফসিল পুনঃনির্ধারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে৷ ৩০ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণ হবে৷’’ সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে নির্বাচন কমিশনের ইভিএম প্রদর্শনীতে সিইসির এই ঘোষণা আসে৷

এদিকে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় মনোনয়ন ফর্ম বিক্রি শুরু করেছে বিএনপি৷ আজ বেলা পৌনে ১১টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফর্ম বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়৷

বিএনপি এবার ভোটে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা যাচ্ছে ব্যাপক উৎসাহ

বিএনপি এবার ভোটে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা যাচ্ছে ব্যাপক উৎসাহ

প্রথমেই খালেদা জিয়ার বাবার বাড়ির আসন ফেনী-১ (পরশুরাম উপজেলা, ফুলগাজী উপজেলা ও ছাগলনাইয়া)-এর জন্য তাঁর পক্ষে বিএনপির মনোনয়ন ফর্ম সংগ্রহ করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর৷ খালেদা জিয়ার আরেক পুরনো আসন বগুড়া-৬ (সদর) এর জন্য তার পক্ষে দলের মনোনয়ন ফর্ম সংগ্রহ করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান৷

এছাড়া শ্বশুরবাড়ির আসন বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাজাহানপুর) এর জন্য খালেদা জিয়ার পক্ষে আরেকটি মনোনয়ন ফর্ম কেনেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস৷

অষ্টম সংসদ নির্বাচনে খালেদা জিয়া ফেনী, বগুড়ার এই তিনটিসহ পাঁচটি আসন থেকে নির্বাচন করে বিজয়ী হয়েছিলেন৷ এরপর ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিএনপি বর্জন করে৷ দুই মামলায় ১৭ বছরের সাজা নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া আছেন কারাগারে৷ দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হওয়ায় এবারও তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে৷

তবে বিএনপি এবার ভোটে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা যাচ্ছে ব্যাপক উৎসাহ৷ ধানের শীষ মার্কা নিয়ে ভোট করতে আগ্রহীরা সকাল থেকেই কর্মী সমর্থকদের নিয়ে নয়া পল্টনে জড়ো হতে শুরু করেছেন৷ তাদের মিছিল থেকে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে৷

বিএনপি'র মনোনয়ন ফর্ম কিনতে লাগছে ৫ হাজার টাকা৷ আর জমা দেওয়ার সময় ২৫ হাজার টাকা জামানত দিতে হচ্ছে৷ সোমবার ও মঙ্গলবার বিএনপির মনোনয়ন ফর্ম বিক্রি হবে; মঙ্গল ও বুধবার তা জমা দেওয়া যাবে৷

বিএনপির শীর্ষ নেতাদের পক্ষে দলীয় মনোনয়ন ফর্ম সংগ্রহের সময় মোহাম্মদ শাহজাহান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, জয়নুল আবদিন ফারুক, ভিপি জয়নাল আবেদীন, আবদুস সালাম, রুহুল কবির রিজভী, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, রেহানা আখতার রানু, মীর সরফত আলী সপু, বেলাল আহমেদ, তাইফুল ইসলাম টিপু সেখানে উপস্থিত ছিলেন৷

এদিকে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীরা দলবল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে আসায় নয়া পল্টনের সড়কে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে৷ ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা জট ছাড়িয়ে রাস্তা খোলা রাখার চেষ্টা করছেন৷

নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা

বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অংশগ্রহণের অনিশ্চয়তার মধ্যেই গত বৃহস্পতিবার সিইসি কে এম নূরুল হুদা ২৩ ডিসেম্বর ভোটের তারিখ ধরে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন৷ রোববার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংবাদ সম্মেলন থেকে জোটের প্রধান নেতা কামাল হোসেন ও মুখপাত্র বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আসন্ন সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেন৷ পরে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলও ভোটে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানায়৷ তবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে ভোট এক মাস পেছানোর দাবি জানিয়েছে বিএনপিকে নিয়ে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট৷

এপিবি/ডিজি (সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, প্রথম আলো)

এ বিষয়ে আপনার কোন মতামত থাকলে লিখুন নীচে মন্তব্যের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন