নির্বাচনে দলের বিপর্যয়ের পর মলিন ওবামা | বিশ্ব | DW | 04.11.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নির্বাচনে দলের বিপর্যয়ের পর মলিন ওবামা

সমালোচকদের মুখে প্রায়ই একটা কথা শোনা যায়৷ তা হলো মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আবেগ কখনও দেখা যায় না৷ তবে এমন কথা এবার মিথ্যা করেই, বিষন্ন আর মলিন মুখে হাজির হলেন ওবামা সাংবাদিকদের সামনে৷

election, President, Barack, Obama, মার্কিন, প্রেসিডেন্ট,বারাক, USA, ওবামা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা (ফাইল ছবি)

এমনকি বক্তৃতার অধিকাংশ সময় দেখা গেছে তাঁর চোখদুটি বারবার নিচের দিকে চলে যাচ্ছিল৷ মধ্যবর্তী নির্বাচনে নিজের দলের ভরাডুবির পর হোয়াইট হাউসে এমনভাবেই দেখা গেল বারাক ওবামাকে৷ মাত্র দু'বছর আগে রিপাবলিকান প্রার্থী জন ম্যাককেইনকে হারিয়ে ক্ষমতায় গেছেন ওবামা৷ কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই দলের এমন অবস্থা বেশ দুর্বল করে দিয়েছে ওবামাকে৷ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এক পর্যায়ে বলেন, ‘‘আমি খুব খারাপ বোধ করছি৷'' একইসাথে স্বীকার করলেন দলের এই অবস্থার জন্য নিজের দায়িত্বের কথা৷ মার্কিনিদের সঙ্গে তাঁর সংস্পর্শ কী কমে গেছে - প্রশ্নের জবাবে ওবামা বলেন, ‘‘কাজের ভিড়ে কখনো কখনো আমরা খেই হারিয়ে ফেলি মানুষের সঙ্গে সেই সম্পর্কের যা আমাদের ক্ষমতায় এনেছিল৷''

মধ্যবর্তী নির্বাচনের ফলাফলের পর উচ্ছ্বসিত রিপাবলিকানরা ওবামার পরিকল্পনার বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তোলার কথা জানালেন৷ মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের পরবর্তী স্পিকার হওয়ার পথে থাকা রিপাবলিকান জন বোয়েনার বললেন, ‘‘এটা খুব স্পষ্ট যে, মার্কিন জনগণ অধিকতর ছোট, কম ব্যয়সাপেক্ষ এবং বেশি হাজিরজবাব সরকার চায়৷'' তিনি বলেন, ‘‘আমাদের অঙ্গীকার হচ্ছে মার্কিন জনগণের কথা শোনা৷'' এছাড়া বিশ্লেষকরা মনে করছেন, এই নির্বাচনের ফলাফল জলবায়ু পরিবর্তন রোধ এবং পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে গৃহীত পরিকল্পনাসহ বিভিন্ন পররাষ্ট্র ও অভ্যন্তরীণ নীতি নির্ধারণে বারাক ওবামার অবস্থানকে বেশ জটিল পরীক্ষার মধ্যে ফেলবে৷

প্রসঙ্গত, মধ্যবর্তী নির্বাচনে মার্কিন তরুণদের ভোটের সংখ্যা কমেছে বলে জানিয়েছে একটি গবেষণা সংস্থা৷ তারা বলছে, ২০০৬ সালের মধ্যবর্তী নির্বাচনের তুলনায় এবারের নির্বাচনে অ্যামেরিকার তরুণদের ভোট পড়েছে প্রায় দশ লাখ কম৷ সেন্টার ফর ইনফর্মেশন অ্যান্ড রিসার্চ অন সিভিক লার্নিং অ্যান্ড এনগেজমেন্ট এর হিসাবে, মঙ্গলবার ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সি তরুণদের প্রতি পাঁচ জনে একজন ভোট দিয়েছে৷ এই বয়সের তরুণদের ভোট পড়েছে প্রায় ৯০ লাখ৷ অথচ ২০০৬ সালের নির্বাচনে ভোট দিয়েছিল প্রায় এক লাখ তরুণ৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন