নিরাপত্তার দোটানায় সম্পন্ন ভারতে পঞ্চম দফার নির্বাচন | বিশ্ব | DW | 06.05.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

নিরাপত্তার দোটানায় সম্পন্ন ভারতে পঞ্চম দফার নির্বাচন

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হলো সোমবার৷ এই দফায় মোট ৫১টি আসনে ভোটগ্রহণ হয়েছে৷

পশ্চিমবঙ্গ, জম্মু ও কাশ্মীরের পাশাপাশি ভোটগ্রহণ হয়েছে বিহার, রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ ও ঝাড়খণ্ড রাজ্যে৷ এর মধ্যে রয়েছে আমেঠি, রায়বরেলি, লখনৌ ও পুলওয়ামা'র মতো ‘হেভিওয়েট' আসনও৷

বিকেল ৩টা পর্যন্ত সারা দেশে ভোট পড়েছে মোট ৫০দশমিক ৭০ শতাংশ৷

এর মধ্যে, বিহারে ভোট পড়েছে ৪৪ দশমিক ৮শতাংশ, জম্মু কাশ্মীরে ১৫ দশমিক ৩৪ শতাংশ, মধ্যপ্রদেশে ৫৪ দশমিক ১৫শতাংশ, রাজস্থানে ৫০ দশমিক ৩৮শতাংশ, উত্তরপ্রদেশে ৪৪ দশমিক ৮৯শতাংশ, পশ্চিমবঙ্গে ৬২ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং ঝাড়খণ্ডে ৫৮ দশমিক ৬৩ শতাংশ৷

কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতি জোরালো থাকা সত্ত্বেও দেশের বিভিন্ন স্থান, বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গ থেকে পাওয়া যাচ্ছে সংঘর্ষ ও ছাপ্পা ভোটের খবর৷

পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি

৬ মে পঞ্চম দফার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হয় পশ্চিমবঙ্গের ৭টি আসনে৷

সবক'টি আসনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপস্থিতি ১০০ শতাংশ থাকা সত্ত্বেও আরামবাগ কেন্দ্রে তৃণমূল কর্মীদের ভোটারদের ওপর চড়াও হবার অভিযোগ ওঠে৷

খুনের হুমকি দিয়ে ভোটকেন্দ্র থেকে বাম পোলিং এজেন্টকে বার করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ৷ কেন্দ্রীয় বাহিনীর তৎপরতা নিয়েও ওঠে প্রশ্ন৷

এদিকে, প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অর্জুন সিংহ, যিনি বর্তমানে ভারতীয় জনতা পার্টির হয়ে ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে লড়ছেন, শিকার হন হামলার৷

সকাল ১১টা নাগাদ তিনি ব্যারাকপুর কেন্দ্রের অন্তর্গত কাঁকিনাড়া অঞ্চলের একটি বুথ পরিদর্শন করতে গেলে তৃণমূল সমর্থকদের একটি দল বিক্ষোভ শুরু করে৷ অর্জুন সিংহকে বাঁশ নিয়ে কিছু মানুষ তাড়া করলে তিনি পালানোর চেষ্টা করেন৷ পরে বিজেপি-কর্মীদের সাথে নিয়ে বিক্ষোভকারীদের ধাওয়া করতে গেলে মাটিতে পড়ে চোটও পান তিনি৷

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনের জন্য মোতায়েন ৫৭৮ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী করা হয়েছে৷ এর মধ্যে এই ব্যারাকপুর কেন্দ্রের জন্যই রয়েছে ৭০টি কোম্পানি৷ সাথে রয়েছে ২০টি কুইক রেসপন্স টিমও৷

তবুও পশ্চিমবঙ্গের একাধিক অঞ্চল থেকে উঠে আসছে তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের অভিযোগ৷

পুলওয়ামায় গ্রেনেড বিস্ফোরণ

গত ফেব্রুয়ারি মাসে জঙ্গি হামলার পর থেকেই আলোচিত হচ্ছিল জম্মুর পুলওয়ামা অঞ্চল৷ সোমবার সেই পুলওয়ামার একটি ভোটকেন্দ্রে ঘটে গ্রেনেড বিস্ফোরণ৷ এতে হতাহতের কোনো খবর এখনো পাওয়া যায়নি৷

এছাড়া বিহারের একটি ভোটকেন্দ্রে দুষ্কৃতীরা ইভিএম মেশিন ভেঙে দেয় বলে জানিয়েছে বেশ কিছু ভারতীয় সংবাদমাধ্যম৷ রাহুল গান্ধী বনাম স্মৃতি ইরানি'র রাজনৈতিক লড়াইয়ের কেন্দ্র উত্তর প্রদেশের আমেঠি'র একটি বুথে কংগ্রেসকর্মীদের বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগতুলেছেন সেখানের বিজেপি প্রার্থী স্মৃতি ইরানি৷

পঞ্চম দফার ভোটগ্রহণে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা বাদ দিলে দেশজুড়ে পরিবেশ মোটামুটি শান্ত, জানাচ্ছে একাধিক সংবাদমাধ্যম৷

এসএস/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন