1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: picture-alliance/dpa/D. Bockwoldt

নিজের নামের ট্রেডমার্ক করতে চান গ্রেটা টুনব্যার্গ

১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জলবায়ু আন্দোলন করে বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পেয়েছেন সুইডেনের ১৭ বছর বয়সি তরুণী গ্রেটা টুনব্যার্গ৷ এবার তিনি তাঁর নামের ট্রেডমার্ক করাতে চান বলে জানিয়েছেন৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%9C%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%A1%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%95-%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%A8-%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%9F%E0%A6%BE-%E0%A6%9F%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%97/a-52224851

বুধবার ইন্সটাগ্রামে দেয়া এক পোস্টে তিনি নিজের নাম ছাড়াও তাঁর শুরু করা ‘ফ্রাইডেস ফর ফিউচার' আন্দোলন এবং সুইডিশ ভাষায় লেখা ‘স্কুলস্ট্রেইক ফুর ক্লিমাটেট', যার অর্থ ‘জলবায়ুর জন্য স্কুল ধর্মঘট', শ্লোগানেরও ট্রেডমার্ক করার ইচ্ছার কথা জানান৷

এই শ্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়েই তিনি প্রথম সুইডিশ সংসদের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেছিলেন৷ প্রতি শুক্রবার স্কুলে না গিয়ে এই প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ করতেন গ্রেটা৷ সেখানে থেকেই পরবর্তীতে ‘ফ্রাইডেস ফর ফিউচার'  আন্দোলন গড়ে উঠে৷ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরা শুক্রবার করে জলবায়ু আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন, নিচ্ছেন৷ 

গ্রেটা টুনব্যার্গ লিখেছেন, এই আন্দোলনকে বাণিজ্যিকীকরণের হাত থেকে বাঁচাতেই ট্রেডমার্ক করা প্রয়োজন৷ ‘‘পূর্ব অনুমতি ছাড়াই সম্পূর্ণ বাণিজ্যিক কারণে তাঁর ও এই আন্দোলনের নাম নিয়মিত ব্যবহার করা হচ্ছে,'' বলে জানান তিনি৷

আন্দোলনের নামে পণ্য বিক্রি ও মানুষের কাছ থেকে টাকা সংগ্রহ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি৷

বই থেকে পাওয়া রয়্যালটি, দান, প্রাইজমানি ইত্যাদি থেকে পাওয়া অর্থ স্বচ্ছতার সঙ্গে ব্যবহারের জন্য পরিবারের সঙ্গে মিলে একটি ফাউন্ডেশন গড়ে তোলা হয়েছে বলেও জানান টুনব্যার্গ৷

জেডএইচ/কেএম (এএফপি, ডিপিএ)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Symbolbild I Energiearmut I Hohe Energiepreise

‘গ্যাস সংকটের সহসা সমাধান নেই’

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান