নিজের টেবিলে ‘নিউক্লিয়ার বোতাম’ আছে, জানালেন কিম | বিশ্ব | DW | 02.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া

নিজের টেবিলে ‘নিউক্লিয়ার বোতাম’ আছে, জানালেন কিম

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন তাঁর নতুন বছরের বার্তায় যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সতর্কবাণী উচ্চারণ করেছেন৷ তবে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার আগ্রহ দেখিয়েছেন৷ দক্ষিণ কোরিয়া আগামী মঙ্গলবার আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে৷

সোমবার দেয়া ভাষণে কিম জং উন যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে বলেন, তাঁর নিজের টেবিলে ‘নিউক্লিয়ার বোতাম’ আছে৷ উত্তর কোরিয়াকে হুমকি দিলে সেটি ব্যবহৃত হওয়ার জন্য তৈরি বলেও জানান তিনি৷

উত্তর কোরিয়ার এই মন্তব্য সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে নববর্ষের পার্টি অংশগ্রহণরত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘‘আমরা দেখব৷’’ এরপর বিষয়টি নিয়ে একটি টুইটও করেছেন৷ 

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রকে হুমকি দিলেও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা শুরুর আগ্রহ দেখিয়েছেন কিম জং উন৷ আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার একটি প্রতিনিধি দল পাঠানোর আগ্রহও দেখিয়েছেন তিনি৷

কিম জং উনের এই আগ্রহের পর মঙ্গলবারই দক্ষিণ কোরিয়া আলোচনার জন্য একটি নির্ধারিত দিনের প্রস্তাব করেছে৷

দক্ষিণ কোরিয়ার একত্রীকরণ মন্ত্রী চো মিয়ং-গিওন বলেন, আগামী ৯ তারিখে পানমুনজোমের পিস হাউসে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের আলোচনার প্রস্তাব করছে দক্ষিণ কোরিয়া৷ উল্লেখ্য, দুই কোরিয়ার সীমান্তে অবস্থিত সেনামুক্ত এলাকার একটি গ্রাম হচ্ছে পানমুনজোম৷

ঐ আলোচনার বিষয়বস্তু ঠিক করতে ২০১৬ সালে বন্ধ হয়ে যাওয়া আন্তঃকোরীয় হটলাইন ব্যবহার করা যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি৷

এর আগে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে দুই কোরিয়ার মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ সেই সময়কার সীমান্ত উত্তেজনা কমাতে ঐ বৈঠক হলেও আলোচনা শেষে কোনো চুক্তিতে পৌঁছতে পারেনি দুই পক্ষ৷

এবার যদি উত্তর কোরিয়া আলোচনায় বসে তাহলে তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথ সামরিক অনুশীলন বন্ধ করতে দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে দাবি জানাতে পারে বলে মনে করছেন দক্ষিণ কোরিয়ার একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক৷ ডংগুক বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতির ঐ অধ্যাপক কোহ ইয়ু-হুয়ান মনে করেন, পরমাণু অস্ত্রে সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে উত্তর কোরিয়া এখন দক্ষিণের সঙ্গে সম্পর্ক পুনঃস্থাপনের চেষ্টা করছে৷

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন আলোচনা করতে উত্তর কোরিয়ার আগ্রহকে স্বাগত জানিয়েছেন৷ তবে তিনি বলেন, আন্তঃকোরীয় সম্পর্ক উন্নয়নে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কর্মসূচি থেকে সরে আসতে হবে৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন