নাৎসিদের সঙ্গে মাক্রোঁর তুলনা ডিলিট করলেন পাক মন্ত্রী | বিশ্ব | DW | 23.11.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তান

নাৎসিদের সঙ্গে মাক্রোঁর তুলনা ডিলিট করলেন পাক মন্ত্রী

মাক্রোঁকে নাৎসিদের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন পাক মন্ত্রী। রোববার অবশ্য তা ডিলিট করে দিয়েছেন তিনি।

সপ্তাহান্তে ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁর সঙ্গে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন নাৎসিদের তুলনা করেছিলেন পাকিস্তানের এক মন্ত্রী। টুইটে তিনি এ কথা বলেছিলেন। যার তীব্র নিন্দা করেছিল ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। রোববার তাঁর টুইট ডিলিট করে দিয়েছেন ওই পাক মন্ত্রী।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যম লিখেছিল,ফ্রান্সে প্রত্যেক মুসলিম ছাত্রকে একটি করে আইডি দেওয়া হবে। কেবলমাত্র মুসলিম ছাত্রদেরই ওই আইডি দেওয়া হবে, যাতে তারা যে মুসলিম, তা বোঝা যায়। ওই সংবাদটি শেয়ার করে পাকিস্তানের মানবাধিকার মন্ত্রী শিরিন মাজারি একটি টুইট করেন। সেখানে মাক্রোঁকে নাৎসিদের সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মানিতে ইহুদিদের হলুদ ব্যাজ পরানো হতো। যাতে তাঁদের ইহুদি বলে চেনা যায়। ফ্রান্সে ঠিক সে কাজই করতে চাইছেন মাঁক্রো।

মন্ত্রীর ওই টুইটের পরে অবশ্য তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে ফ্রান্স। ফ্লান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন একটি খবরকে সামনে রেখে এমন মন্তব্য করেছেন পাক মন্ত্রী। তিনি যেন তাঁর মন্তব্য ডিলিট করেন। এ দিকে যে সংবাদমাধ্যমে ওই খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল, তারাও সংবাদটি বদলে দেয়। বলা হয়, শুধু মুসলিম নয়, আইডি করা হলে সমস্ত ছাত্রদের জন্যই তা করা হবে।

এরপরেই দ্রুত নিজের টুইটটি ডিলিট করেন পাক মন্ত্রী। লেখেন, একটি সংবাদের ভিত্তিতে টুইট করেছিলেন। সংবাদটি পরিবর্তন করার পরে নিজের টুইট ডিলিট করলেন তিনি।

পাক মন্ত্রী টুইট ডিলিট করলেও পাকিস্তান জুড়ে এখনো মাঁক্রোর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলছে। অক্টোবরের শেষে পাক সংসদে একটি প্রস্তাব পাশ হয়। সেখানে বলা হয়, প্যারিস থেকে পাকিস্তানের প্রতিনিধিদের ফিরিয়ে আনা হোক। এখনো পর্যন্ত তা করা না হলেও মহানবীর (সা:) কার্টুন নিয়ে পাকিস্তান যে ক্ষুব্ধ তা স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। ইমরান খান স্বয়ং এ বিষয়ে মন্তব্য করেছেন। পাকিস্তানে ফরাসি দ্রব্য বর্জনের ডাক দিয়েছে বেশ কিছু গোষ্ঠী। তারই মধ্যে পাক মন্ত্রীর টুইট রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছিল। বহু মানুষ ওই টুইট রিটুইট করেছিলেন।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স)

বিজ্ঞাপন