নারীর প্রতি সহিংসতায় উদ্বেগ জাতিসংঘের | বিশ্ব | DW | 08.10.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

নারীর প্রতি সহিংসতায় উদ্বেগ জাতিসংঘের

বাংলাদেশে নারীদের বিরুদ্ধে বেড়ে চলা সহিংসতাকে গুরুতর অপরাধ ও মানবাধিকারের মারাত্মক লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে জাতিসংঘ৷ সেই সাথে ধর্ষণ বিষয়ক ফৌজদারি বিচারব্যবস্থা সংস্কারের পক্ষে মত দিয়েছে সংস্থাটি৷

সম্প্রতি দেশে ধর্ষণের ঘটনার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশে জাতিসংঘের কার্যালয় এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানায়৷

বিবৃতিতে সংস্থাটি বলছে, ‘‘জাতিসংঘ ভুক্তভোগী ও সাক্ষীদের সমর্থন ও সুরক্ষা প্রদান এবং বিচারের ক্ষেত্রে দ্রুততা আনয়নে ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থার জরুরি সংস্কারের পক্ষে৷ এছাড়া, নারী ও মেয়েদের সুরক্ষার জন্য অসংখ্য আইন ও কর্মপরিকল্পনা কীভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে সে সম্পর্কে জবাব দেওয়ার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতা সুনিশ্চিত করার কোন বিকল্প নেই৷’’

জাতিসংঘের বাংলাদেশ টুইটার অ্যাকাউন্টে বিবৃতিটি প্রকাশ করা হয়েছে৷ সেখানে বলা হয়েছে নোয়াখালীর এ ঘটনাটি বাংলাদেশের সমাজে ‘সামাজিক, আচরণগত ও কাঠামোগতভাবে বিদ্যমান নারী-বিদ্বেষের চিত্রকে ফুটিয়ে তুলেছে'৷

জেন্ডার সংবেদনশীল বিচারব্যবস্থা প্রণয়ন ও উন্নয়ন এবং নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা পরিচালনা পদ্ধতিতে ব্যাপক পুনর্মূল্যায়নের ক্ষেত্রে সরকারকে সহায়তা করতেও প্রস্তুত বলে জানায় জাতিসংঘ৷

এদিকে নোয়াখালী ও সিলেটের পর দেশে আরো কয়েকটি জেলায় ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে৷ গত কয়েকদিনে শিশু ও বিধবাসহ বেশ কয়েকজন ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে জানায় সংবাদমাধ্যমগুলো৷

পাবনায় ধর্ষণের অভিযোগে আওয়ামী লীগ নেতা গ্রেপ্তার

পাবনার চাটমোহরে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ৷ এ ঘটনায় পাশের জেলা নাটোরের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জানায়, গ্রেপ্তার গোলজার হোসেন (৩৫) নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক৷  

মামলকারি গৃহবধূর অভিযোগ, স্বামী বিদেশে থাকা অবস্থায় তার সঙ্গে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক গড়ে এর ভিডিও ধারণ করেন গোলজার৷ পরে তা প্রকাশের হুমকি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন৷

বুধবার রাতে গোলজারকে তার নাটোরের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন চাটমোহর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম৷

কুষ্টিয়ায় মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণ মামলায় শিক্ষক প্রেপ্তার

কুষ্টিয়ার মিরপুরে অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

ছাত্রীর বাবার দায়ের করা মামলায় উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের স্বরুপদহ চকপাড়া এলাকার সিরাজুল উলুম মরিয়ম নেসা মাদ্রাসার সুপার (প্রধান শিক্ষক) আব্দুল কাদেরকে গত সোমবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়৷ মিরপুর থানার ওসি আবুল কালাম বলেন, শনিবার এ মাদ্রাসা শিক্ষক ছাত্রীটিকে তার কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ মেয়েটির৷  পরে মেয়েটি তার সহপাঠীকে জানালে এলাকায় খবর ছড়িয়ে পড়ে৷ এতে বিক্ষুদ্ধ হয়ে স্থানীয়রা মাদ্রাসায় হামলা ও ভাঙচুর চালায় বলে জানায় পুলিশ৷

সিলেট ও লক্ষীপুরে ধর্ষণ

সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনার পর গত শনিবার শহরের শামীমাবাদ এলাকায় এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে৷ এ ঘটনায় পুলিশ দিলওয়ার হোসেনসহ আরো একজনকে আটক করেছে পুলিশ৷ দিলওয়ার হোসেন স্থানীয় শ্রমিক লীগের নেতা বলে স্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যমে উল্লেখা করা হয়েছে৷ 

এদিকে লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলায় ঘরে ঢুকে বিধবাকে হাত-পা বেঁধে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে৷ পুলিশ জানায়, রোববার রাত ১টার দিকে উপজেলার চরপোড়াগাছা ইউনিয়নের কলাকোপা এলাকায় পূর্ববিরোধের জেরে এক বিধবাকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে৷ এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট চারজনকে আটক করা হয়েছে৷

আরআর/এফএস (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

গতবছর অক্টোবরের ছবিঘরটি দেখুন..

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন