নারীর প্রতি যৌন সহিংসতায় নিকৃষ্ট শহর দিল্লি | বিশ্ব | DW | 16.10.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নারীর প্রতি যৌন সহিংসতায় নিকৃষ্ট শহর দিল্লি

নারীর প্রতি যৌন সহিংসতার দিক থেকে বিশ্বের নিকৃষ্টতম মেগাসিটির তালিকায় ব্রাজিলের সাও পাওলোর পাশাপাশি জায়গা করে নিয়েছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি৷তালিকায় ঢাকার অবস্থান সাত নম্বরে৷

থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন পরিচালিত এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে৷ ‘নির্ভয়া ধর্ষণকাণ্ডের' পাঁচ বছরের মাথায় এ জরিপের ফলে ভারতের রাজধানী যৌন সহিংসতায় বিশ্বের নিকৃষ্টতম মেগাসিটির কাতারে উঠে এলো৷

২০১২ সালের ডিসেম্বরে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হন নির্ভয়া, পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান৷ এ ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছিল ভারতকে৷ উত্তাল প্রতিবাদের মুখে দ্রুত বিচার ট্রাইবুনাল গঠন, ধর্ষণের শিকার নারীদের জন্য তহবিল গঠনসহ আইনের সংষ্কার ইত্যাদি নানা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয় ভারত সরকার৷ তারপরেও দিল্লীসহ ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে ধর্ষণ অত্যন্ত নিয়মিত ঘটনা৷ ধর্ষণ ও ধর্ষণ শেষে হত্যাকাণ্ড প্রায় নিয়মিতই জায়গা করে নেয় খবরের পাতায়৷ পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালে দিল্লিতে ধর্ষণের শিকার হয় ২১৫৫ জন, যা ২০১২ সালের তুলনায় ৬৭ শতাংশ বেশি৷

অবশ্য এই জরিপের আগে থেকেই দিল্লি বিশ্বে ‘ধর্ষণের রাজধানী' হিসেবে নিন্দা কুড়িয়ে আসছে৷ প্রায় ২ কোটি ৬৫ লাখ মানুষের আবাস দিল্লি বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল মেগাসিটি৷ দিল্লি শহরের নারীরা সম্ভ্রম হারানো, যৌন হামলার শিকার হওয়া, ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির আতঙ্কে থাকে৷ তবে ‘নির্ভয়া ধর্ষণকাণ্ডের' পর সারা বিশ্বে ভারতের যৌন সহিংসতা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়, যেখানে পথেঘাটে, স্কুলে, গণপরিবহনে নারীরা ধর্ষণের শিকার হয়৷ দালালের হাতে পড়ে পাচার ও বিক্রি করে হয়ে যায় অসংখ্য নারী৷

জাতিসংঘ ঘোষিত বিশ্বের ১৯টি মেগাসিটিতে এ বছরের জুন-জুলাই মাসে এ জরিপ চালানো হয়৷ ধর্ষণের তালিকায় সবার শীর্ষে দিল্লির সাথেই নাম এসেছে ব্রাজিলের সাও পাওলোর৷ এ বছরের জুলাইতেই ২,২৮৭টি ধর্ষণের মামলা হয়েছে সাওপাওলোতে৷ সেখানে ২০১৬ সালে এ সংখ্যা ছিল ২,৮৬৮৷ দক্ষিণ অ্যামেরিকার দেশ ব্রাজিলের শহরটিতে গণপরিবহনে নারী ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্তরা যাতে প্রমাণের অভাবে ছাড়া না পায়, তার দাবি তুলে গত সেপ্টেম্বরে #মাইঅ্যাবিউজারড্রাইভার নামের অনলাইন ক্যাম্পেইন সাড়া জাগায় বিশ্বব্যাপী

তবে নারীর জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে মিশরের কায়রো৷ পাকিস্তানের করাচি রয়েছে দ্বিতীয় অবস্থানে৷ ধর্ষণে সবার ওপরে থাকলেও নারীদের জন্য ‘সবচেয়ে বেশি বিপজ্জনক' শহরের তালিকায় দিল্লীর নাম রয়েছে চারে৷ এ তালিকায় ঢাকার অবস্থান সপ্তম৷ যৌ্ন সহিংসতার বিচারে ‘নারীর জন্য সবচেয়ে নিরাপদ' হিসেবে নাম এসেছে জাপানের রাজধানী টোকিওর৷

শিক্ষা, ভূমি বা সম্পত্তির মালিকানাসহ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে প্রবেশাধিকারের আরেকটি তালিকায় দিল্লি রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে৷ এ তালিকায় সবার ওপরে আছে লন্ডন৷

আরএন/এসিবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়