নাট্যশিল্পী ও দর্শকদের পরম প্রাপ্তি ‘নান্দীকার জাতীয় নাট্যমেলা’ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 15.12.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সমাজ সংস্কৃতি

নাট্যশিল্পী ও দর্শকদের পরম প্রাপ্তি ‘নান্দীকার জাতীয় নাট্যমেলা’

প্রতিবছরের মত ১৬ই ডিসেম্বর থেকে কলকাতার ‘অ্যাকাডেমি অব ফাইন আর্টস’-এ শুরু হচ্ছে ২৮তম ‘নান্দীকার জাতীয় নাট্যমেলা’৷ চলবে বড়দিন, অর্থাৎ আগামী ২৫শে ডিসেম্বর পর্যন্ত৷

কলকাতায় মঞ্চায়িত নাটক

কলকাতায় মঞ্চায়িত নাটক

পশ্চিমবঙ্গে থিয়েটার দলগুলির নাম করলেই উঠে আসে বহুরূপী, লিটল্ থিয়েটার গ্রুপ অথবা নান্দীকার-এর নাম৷ অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়, কেয়া চক্রবর্তীর মত কতো বড় মাপের সব মানুষের অভিনয় উপহার দিয়েছে নান্দীকার কলকাতার নাট্যামোদী মানুষদের কাছে৷ মঞ্চায়ন করেছে মনে রাখার মতো কতো নাটক৷ ১৯৭৯ সালে প্রায় দৃষ্টিহীন অবস্থায় নান্দীকার প্রযোজিত ‘মুদ্রারাক্ষস' নাটকে চাণক্যের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন শম্ভূ মিত্র স্বয়ং৷ দারুণ সাড়া ফেলেছিল নাটকটি৷ নান্দীকারের প্রাণপুরুষ রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত এবং তাঁর স্ত্রী স্বাতিলেখা সেনগুপ্তর অভিনয়ও সদা নজর কাড়ে সবার৷

‘নান্দীকার জাতীয় নাট্যমেলা'-র শুরুটা ছিল ১৯৮৪ সালে৷ নান্দীকারের জন্মলগ্ন উপলক্ষে নতুন কিছু করার তাগিদে, সেই প্রথমবার অনুষ্ঠিত হয় ‘নান্দীকার জাতীয় নাট্যমেলা'৷ তবে সে সময় এই উৎসব ছিল মাত্র দু'দিনের৷ তখন দল ছিল ছোট৷ এখন ১০ দিনব্যাপী এক উৎসবে পরিণত হয়েছে এই বাৎসরিক নাট্যমেলা৷

Häftlinge Theater Indien

শোনা যাচ্ছে, এবছরের এই নাট্যমেলায় যোগ দিতে প্রায় ১০টি দল কলকাতায় আসছে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে৷ এদের মধ্যে রয়েছে অসম, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি, জম্মু ও কাশ্মীর, ওড়িশা এবং মাহারাষ্ট্র৷ এমনকি, সুদূর ইজরায়েল আর প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশের নাটকও দেখার সুযোগ থাকবে এবার৷ এছাড়া, নান্দীকার-এর নিজস্ব নির্দেশনা এবং প্রযোজনায় মঞ্চস্থ করা হবে মোট পাঁচটি নাটক৷ যার মধ্যে দু'টিতে অভিনয় করবেন দলের তরুণ প্রজন্ম৷

শুক্রবার সন্ধ্যায়, নাট্যমেলার উদ্বোধনী আনুষ্ঠানে মঞ্চস্থ হবে দেবেশ চট্টোপাধ্যায়ের নির্দেশনা এবং ‘মিনার্ভা রেপার্টারি' নাট্যদলের প্রযোজনায় ‘দেবী সর্পমস্তা' নাটকটি৷

বলাই বাহুল্য, নাট্যমেলার জন্মলগ্নে এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছিলেন শম্ভূ মিত্র৷ অভিনন্দন জানিয়েছিলেন গিরীশ করনাড, শ্রীরাম লাগুর মতো নাট্যব্যক্তিত্ব৷ তাই আর্থিক প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও, ২৮ বছর ধরে জাতীয় নাট্যমেলার এই বিরতিহীন পথচলা, নাট্যশিল্পী এবং দর্শকদের এক পরম প্রাপ্তি৷

প্রতিবেদন: দেবারতি গুহ

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

ইন্টারনেট লিংক

বিজ্ঞাপন