নাটকের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ, হাঙ্গেরিতে প্রতিবাদ | বিশ্ব | DW | 10.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

নাটকের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ, হাঙ্গেরিতে প্রতিবাদ

হাঙ্গেরিতে নাটকের পরিচালক ও অভিনেতাদের স্বাধীনতা খর্ব করাতে উদ্য়োগী হযেছে সরকার৷ বুদাপেস্টে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখাতে শুরু করলেন হাজার হাজার নাট্যকর্মী, পরিচালক এবং নাট্যপ্রেমীরা৷

নাটকে সরকারি নিয়ন্ত্রণের প্রতিবাদে মুখর হল বুদাপেস্ট৷ নাট্যকর্মীদের বক্তব্য, শিল্পীর স্বাধীনতা তাঁরা ক্ষুন্ন হতে দেবেন না৷ হাঙ্গেরির দক্ষিণপন্থী সরকার সোমবার সংসদে একটি বিতর্কিত বিল পেশ করেছে৷ সেই বিলে বলা হয়েছে,  সরকারি অনুদানে যে নাটক হয়, তার অর্থ সাহায্য করা এবং ম্যানেজমেন্ট প্রক্রিয়ায় আমূল বদল আনা হবে৷ সরকারি মুখপাত্র ইস্টভাল হলিক জানিয়েছেন, ''যদি এই বিল অনুমোদিত হয়ে যায়, তা হলে যে সব নাটকে সরকার অর্থ দেবে, তার পরিচালক কে হবেন, তা ঠিক করার সময় সরকারি প্রতিনিধির বক্তব্য গুরুত্ব পাবে৷'' এই বিল বুধবার অনুমোদন হওয়ার কথা৷ তাই নাট্যকর্মীরা প্রতিবাদে নেমে পড়েছেন৷  

 

সরকারের এই উদ্যোগের পিছনে আছে অত্যন্ত জনপ্রিয় পরিচালকের নাটক, যা বুদাপেস্টের সবথেকে চালু হলে রম রম করে চলছিল৷ এরপর প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর ওর্বান-এর দলের এক পদস্থ নেতার মন্তব্য ছিল, ''এরা সরকারের কাছে নাটক করার জন্য অর্থ দাবি করবে, কিন্তু তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে সরকারকে ঢুকতে দেবে না, তাদের অপরাধের কথা বছরের পর বছর চেপে যাবে, এটা হতে পারে না৷''

হাঙ্গেরিতে সাংস্কৃতিক কাজকর্মের জন্য সরকার প্রচুর অর্থ সাহায্য করে৷ তাই পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলির তুলনায় হাঙ্গেরিতে মিউজিয়াম, অপেরা, নাটকের টিকিটের দাম তুলনামূলকভাবে অনেক কম৷ কিছু পুরসভাও নাটকে অর্থসাহায্য করার জন্য সরকারের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকে৷

সরকারের দাবি, নতুন ব্যবস্থায় স্বচ্ছ্বতা আসবে৷ বিলে বলা হয়েছে, সরকারের ন্যূনতম প্রত্যাশা হল, যে কাজ হচ্ছে, তা দেশের স্বার্থ ও উন্নয়নকে রক্ষা করবে৷ এরপর নাট্যকর্মীদের দাবি, নতুন বিলে তাঁদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে৷ সরকারের প্রস্তাবের নিন্দা করে ৪৫ হাজার লোক একটি আবেদনপত্রে সই করেছেন৷ প্রখ্যাত অভিনেতা ও পরিচালক তামাস জর্ডন বলেছেন, সরকারের সিদ্ধান্ত অতি গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্ন তুলে দিয়েছে৷ রাজনৈতিক দৃষ্টকোণের ওপরে ওঠা অন্তত এই ক্ষেত্রে সম্ভব৷ বুদাপেস্টের মেয়র গার্গেলি কারাকসনি প্রতিবাদকারীদের কাছে বলেছেন, ''নাটকের স্বাধীনতা রক্ষা করার অর্থ শহরের স্বাধীনতাও রক্ষা করা৷'' 

এই প্রতিবাদের মধ্যেই বুধবার বিল পাস করার উদ্যোগ নেবে সরকার।

জিএইচ/এসজি(এএফপি, এপি, ডিপিএ)

বিজ্ঞাপন