নাইজেরিয়ায় জেলে হামলা, বহু বন্দি পলাতক | বিশ্ব | DW | 06.04.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

নাইজেরিয়া

নাইজেরিয়ায় জেলে হামলা, বহু বন্দি পলাতক

দক্ষিণ নাইজেরিয়ায় জেলে হামলা দুষ্কৃতীদের, পলাতক এক হাজার ৮০০-র বেশি বন্দি।

নাইজেরিয়ায় জেলে হামলার পর বহু বন্দি পলাতক।

নাইজেরিয়ায় জেলে হামলার পর বহু বন্দি পলাতক।

নাইজেরিয়ার ইমো রাজ্য। সেখানেই জেলে হামলা চালায় সশস্ত্র দুষ্কৃতীরা। জেলরক্ষীদের সঙ্গে তাদের গুলিবিনিময় হয়। তারপর তারা বিস্ফোরক ব্যবহার করে জেলে ঢুকে যায়। তারপর এক হাজার ৮০০-রও বেশি বন্দি জেল থেকে পালায়। নাইজেরিয়ায় অন্যতম বড় জেল-ভাঙার ঘটনা এটি।

সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, শুধু জেল নয়, শহরের অন্য সরকারি বাড়িতেও একই সঙ্গে আক্রমণ চালায় দুষ্কৃতীরা।

এই এলাকায় বেশ কিছু বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন আছে। তবে কোনো গোষ্ঠীই এখনো পর্যন্ত আক্রমণের দায় স্বীকার করেনি। নাইজেরিয়ার ইন্সপেক্টর জেনারেল অফ পুলিশ ইস্টার্ন সিকিউরিটি নেটওওয়ার্ক(ইএসএন)-কে এই ঘটনার জন্য দায়ী করেছেন। ইএসএন দাবি করে, তারা স্থানীয় ইগবো জনগোষ্ঠীকে বিদেশি হানাদারের হাত থেকে বাঁচাবার জন্য লড়াই করছে।

Nigeria I Überfall auf Gefängnis

জেলে হামলার পরের ছবি। পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বহু নথিপত্র।

প্রেসিডেন্ট বুহারি এক বিবৃতিতে বলেছেন, এটা সন্ত্রাসবাদী কাজ। তিনি পালিয়ে যাওয়া সব বন্দিকে ধরে আবার জেলে রাখার জন্য নিরাপত্তা বাহিনীকে অনুরোধ করেছেন। সপ্তাহ দুয়েক আগে দক্ষিণপূর্ব নাইজেরিয়ায় থানা, সেনার চেকপয়েন্ট এবং জেল আক্রমণ করেছিল সন্ত্রাসীরা। তাতে অন্তত ১২ জন নিরপত্তারক্ষী মারা যান।

এমনিতে নাইজেরিয়ার জেলগুলিতে অধিকাংশ সময় বেশি বন্দি রাখা হয়। জেলগুলি আদৌ স্বাস্থ্যসম্মত নয়। এনিয়ে অতীতে বহু অভিযোগও উঠেছে।

জিএইচ/এসজি(এপি, এএফপি)