নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রথম কাশ্মীর সফরের গুরুত্ব কতটা? | বিশ্ব | DW | 03.07.2019

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রথম কাশ্মীর সফরের গুরুত্ব কতটা?

জম্মু-কাশ্মীরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর প্রথম সফরে ইউনিফায়েড কমান্ডের সঙ্গে বৈঠক করেন৷ হিন্দু তীর্থ অমরনাথ যাত্রার নিরাপত্তা এবং স্কুল পড়ুয়াদের বাড়িতে লেখাপড়া করানোর বিষয়ে জোর দেওয়া হয়৷

দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় ফিরে আসার পর মোদী সরকারের নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দুদিনের জম্মু-কাশ্মীর সফরের প্রথম দিনে উপত্যকার নিরাপত্তা পরিস্থিতি ঢেলে সাজাতে বৈঠক করেন ইউনিফায়েড কমান্ডের সঙ্গে৷ ইউনিফায়েড কমান্ডের প্রতিনিধি দলে ছিলেন, সেনা, আধা সামরিক বাহিনী এবং সন্ত্রাস-বিরোধী ইউনিট এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের পদস্থ কর্তাব্যক্তিরা৷ বর্তমানে শুরু হয়েছে কাশ্মীরে হিন্দুদের বার্ষিক অমরনাথ তীর্যাত্রা৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তা নিচ্ছিদ্র করতে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ দেন৷ কারণ খবর আছে, অমরনাথের পথে থীর্থযাত্রীদের উপরে হামলা চালাতে পারে জইশ-ই-মহম্মদ৷

অমিত শাহ থাকাকালীনই নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে একজন জঙ্গি নিহত হয়৷ গত কয়েক মাসে ১১২ জন জঙ্গি এবং ৭৩ জন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য নিহত হয়েছে৷ বর্তমানে রাষ্ট্রপতির শাসনাধীন  জম্মু-কাশ্মীরের  অসামরিক প্রশাসনের সঙ্গেও রাজ্যের আইন-শৃংখলা নিয়ে পৃথক বৈঠক করেন অমিত শাহ৷বিশেষ করে পুলওয়ামা কাণ্ডের পর জঙ্গি নিধনে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা খতিয়ে দেখেন তিনি৷ বিচ্ছিন্নতাবাদী হুরিয়াত নেতাদেরও দেওয়া হয় শান্তি সমাধানের বার্তা৷ তাদের কাছ থেকেও পাওয়া গেছে ইতিবাচক সাড়া৷ এমনটাই বলা হচ্ছে৷

জঙ্গি তত্পরতা যেভাবে বেড়ে চলেছে তাতে কাশ্মীর উপত্যকার স্কুল পড়ুয়ারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে৷ স্কুলে যেতে ভয় পাচ্ছে৷ যত্রতত্র বোমাবাজি, গুলিবর্ষণ, পাথর বৃষ্টি, যখন তখন কারফিউ, ধর্মঘট তো লেগেই আছে৷ ফলে স্কুল পড়ুয়াদের লেখাপড়া ব্যাহত হচ্ছে৷ গত কয়েক মাসে ১৭টি সরকারি স্কুল ও চারটি বেসরকারি স্কুল জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ আগুন লাগানো হচ্ছে রাতের দিকে৷ এছাড়া শ্রীনগরে অনেক ভালো ভালো স্কুলবিল্ডিং এখন আধা-সামরিক বাহিনীর থাকার জায়গা৷

কাশ্মীরি ছাত্র সংগঠন একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা পিছিয়ে দেবার জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয়৷ কারণ সিলেবাসের ৪০ শতাংশও পড়ানো হয়নি৷এছাড়া লস্কর-ই-তৈয়বাও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীকে উপত্যকার স্কুল-কলেজ না খোলার হুঁশিয়ারি দিয়েছে৷ অনুরূপ হুমকি দেওয়া হয় কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকেও৷ ফলে প্রায় ২০ লাখ কাশ্মীরি পড়ুয়ার ভবিষ্যৎ অন্ধকারাচ্ছন্ন৷

অডিও শুনুন 03:38

কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতিতে অন-লাইনে টিচিং ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই: উদয়ন বন্দোপাধ্যায়

এই প্রসঙ্গে বিশিষ্ট অধ্যাপক উদয়ন বন্দোপাধ্যায়ের কাছে জানতে চাইলে ডয়চে ভেলেকে তিনি বলেন, ‘‘অনলাইন কোচিংয়ের মাধ্যমে এবং অনলাইনে পরীক্ষা দেবে- কেন্দ্রীয় সরকার এমন ব্যবস্থা করতে পারলে খুবই ভালো হয়৷ কার্যত সারা দেশেই এখন অনলাইনের সুবিধা আছে৷ সর্বভারতীয় সব পরীক্ষা তো অনলাইনেই হয়৷ তবে অনলাইন পরীক্ষার জন্য একটা সেন্টার করতে হবে কেন্দ্রীয় সরকারকে৷ সেখানে সবাইকে এসে পরীক্ষা দিতে হবে৷ বাড়িতে বসে নয়৷ প্রত্যেক লোকালিটিতে সেন্টার থাকবে এবং পরীক্ষার দিনগুলিতে সেখানে থাকবে যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা৷ কাশ্মীরে কিভাবে হবে সেটা ঠিক করবে কেন্দ্রীয় সরকার৷ তবে টিচিং পুরোপুরি অনলাইনে করার সুবিধা বেশি৷ কাজেই কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতিতে অন্য কোনো বিকল্প নেই৷''

এভাবে সিলেবাস কমপ্লিট করা যাবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বললেন, ‘‘অনায়াসেই তা করা যায়৷ আমরা যেসব মেটেরিয়াল তৈরি করি, তা অনলাইনের জন্যই৷  ক্লাস টিচিংয়ের থেকে বেশি দেওয়া যায়৷ অনেক বেশি মেটেরিয়াল আপলোড করা যায়, যেটা ক্লাসরুমে হয় না৷ আমরা বলে দেই কী কী প্রশ্ন আসতে পারে৷ কিভাবে উত্তর লিখতে হবে ইত্যাদি৷ কাশ্মীরে যারা প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নিতে পারে না বা নিতে সমস্যা আছে, তাঁদের ক্ষেত্রে অনলাইন এক আশীর্বাদ৷ তবে ইন্টারেকশনটা হয় না৷''

কাশ্মীর থেকে ফিরে এসে জম্মু-কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে সংসদে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ বলেন, সন্ত্রাস দমন অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং তা আরো কঠোর করা হবে৷ রোগ দমনে দরকার পড়লে যেমন কড়া ওষুধ দিতে হয়, তেমনি জঙ্গি দমনের ক্ষেত্রেও সেটা প্রযোজ্য৷ পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীর সংরক্ষণ আইন সংশোধনের কথাও বলেন তিনি৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন