ধীরে হলেও আর্থিক সাহায্য পাচ্ছে ইইউ | বিশ্ব | DW | 28.04.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

ধীরে হলেও আর্থিক সাহায্য পাচ্ছে ইইউ

করোনায় বিধ্বস্ত অর্থনীতি চাঙ্গা করতে পরিকল্পনা পেশ করছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা৷ ৭৫ হাজার কোটি ইউরো অংকের তহবিলের নাগাল পেতে দীর্ঘ প্রায় এক বছর সময় লাগছে৷

জার্মানি, ফ্রান্স তথা ইউরোপের একাধিক দেশ প্রায় একটানা করোনা সংকটের মোকাবিলা করে চলেছে৷ সরকারি ভর্তুকি ও সাহায্য সত্ত্বেও অর্থনীতি সার্বিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছে৷ চীন ও অ্যামেরিকার মতো কিছু দেশ করোনা সংকটের ধাক্কা সামলে উঠে আবার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পথে অগ্রসর হলেও ইউরোপীয় ইউনিয়ন এ ক্ষেত্রে দুর্বল অবস্থায় রয়েছে৷ সেই দুর্বলতা কাটিয়ে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে ইইউ-র উদ্দেশ্যে আরও সক্রিয় ভূমিকার ডাক দিলো ফ্রান্স৷

কোভিড ১৯ সংকটে বিপর্যস্ত অর্থনীতি চাঙ্গা করতে গত বছরের জুলাই মাসে ৭৫ হাজার কোটি ইউরো অংকের বিশাল আর্থিক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলেন ইইউ নেতারা৷ কিন্তু সেই পুনর্গঠন তহবিল এখনো কার্যক্ষেত্রে পুরোপুরি রূপান্তরিত হয় নি৷ তাই ইইউ কমিশনের উদ্দেশ্যে অবিলম্বে জরুরি অবস্থায় বাড়তি ব্যয়ের পরিকল্পনা অনুমোদনের আহ্বান জানিয়েছে ফ্রান্স৷ জার্মান অর্থমন্ত্রী ওলাফ শলৎসের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রী ব্রুনো ল্য মেয়ার বলেন, অনেক সময় নষ্ট হয়েছে৷ চীন প্রবৃদ্ধির পথে ফিরে এসেছে৷ অ্যামেরিকার অর্থনীতিও চাঙ্গা হয়ে উঠছে৷ ইউরোপকেও সেই দৌড়ে থাকতে হবে বলে ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রী মন্তব্য করেন৷ ফ্রান্স চার হাজার কোটি ইউরো এবং জার্মানি দুই হাজার ৮০০ কোটি ইউরো অংক ব্যয়ের নির্দিষ্ট পরিকল্পনা স্থির করেছে৷ ফ্রান্স ও জার্মানি অতীতের ভুল সংশোধন করে সেই বাড়তি অর্থ ব্যাপক বিনিয়োগের অঙ্গীকার করেছে৷ ২০০৮ ও ২০০৯ সালের আর্থিক সংকটের সময় ব্যয় সংকোচ ও কোষাগারে ঘাটতি সামলানোর উপর জোর দিয়ে ভুল করা হয়েছিল বলে এই দুই দেশ মনে করে৷

বুধবার জার্মানি, ফ্রান্স ও ইউরোপের আরও কিছু দেশ ইইউ-র সেই জরুরি তহবিল সদ্ব্যবহারের নির্দিষ্ট প্রস্তাব পেশ করছে৷ কোন দেশ কীভাবে সেই অর্থ ব্যয় করতে চায়, ইইউ কমিশন সেই পরিকল্পনা খতিয়ে দেখে জুলাই মাসের মধ্যেই অনুমোদন করবে বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে৷ সে ক্ষেত্রে গ্রীষ্মের শেষেই দেশগুলি নিজস্ব অর্থনীতি চাঙ্গা করতে বাড়তি অর্থ হাতে পাবে৷ জার্মান অর্থমন্ত্রী ওলাফ শলৎস বলেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী ধাপে ধাপে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে৷ তার মতে, অনুমোদনের প্রক্রিয়া সময়মতো এগোচ্ছে৷ ইইউ কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডেয়ার লাইয়েন বলেন, বিভিন্ন দেশের পুনর্গঠন পরিকল্পনাগুলির ভিত্তিতে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এক আইনি খসড়া তৈরি করা হবে৷

করোনা সংকট সামলাতে ইইউ স্তরে জরুরি তহবিল গঠনের প্রক্রিয়াকে ঘিরে জোরালো তর্কবিতর্কের জের ধরে শেষ পর্যন্ত কিছু শর্ত স্থির করা হয়েছিল৷ ফলে ৭৫ হাজার কোটি ইউরো তহবিলের নাগাল পেতে হলে দেশগুলিকে জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলা এবং ডিজিটাল প্রযুক্তির পথে এগোতে হবে৷ প্রত্যেক সদস্য দেশকে এই সুযোগে নিজস্ব দুর্বলতা কাটিয়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়েছে৷  ইইউ এই প্রথম বাজার থেকে যৌথ ঋণ সংগ্রহ করে এমন তহবিল গঠন করছে৷ সেই অর্থের অর্ধেক সরাসরি অনুদান ও বাকি অর্ধেক সহজ শর্তে ঋণ হিসেবে দেওয়া হবে৷

এসবি/এসিবি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়