ধর্ষণ মহামারি: পরিত্রাণের উপায়? | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 08.07.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

ধর্ষণ মহামারি: পরিত্রাণের উপায়?

ধর্ষণ একটি অপরাধ৷ কিন্তু অপরাধীর চেয়ে বরং আক্রান্তকেই কেনো শিকার হতে হয় পারিবারিক, সামাজিক ও আইনি হেনস্তার? আইনের শাসন, বিচার ব্যবস্থা, পুলিশ ও রাষ্ট্রের দায়িত্ব নিয়ে ডয়চে ভেলের আলোচনায় যোগ দিয়েছিলেন পাঠক-দর্শকও৷

ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন নিয়ে ডয়চে ভেলের আলোচনায় যোগ দিয়েছিলেন পাঠক-দর্শকও৷

ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন নিয়ে ডয়চে ভেলের আলোচনায় যোগ দিয়েছিলেন পাঠক-দর্শকও৷

ঢাকার ওয়ারীতে সাত বছরের শিশু সায়মাকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে৷ ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে মারা মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাতের গল্পও এখনও বাসি হয়ে যায়নি৷ নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় আট শিশুকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ৷

পাঠকেরা অনেকেই এজন্য দায়ী করেছেন বিচারহীনতা বা বিচারে দীর্ঘসূত্রতাকে৷ অনেকে দায়ী করেছেন রাজনৈতিক প্রভাব ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দুর্নীতিকেও৷

ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগের প্রধান খালেদ মুহিউদ্দীন মনে করছেন, শুধু দ্রুত ও সর্বোচ্চ বিচার নিশ্চিত করে এ অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে না৷

পারিবারিক, সামাজিক এবং শিক্ষাব্যবস্থার মধ্যেও নারীকে যেভাবে ‘জানাজানি হলে ইজ্জত থাকবে না' ধরনের মানসিকতার শিক্ষা দেয়া হচ্ছে, এর ফলে অনেক নারীই এমন আচরণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারেন না৷ শিশুরা যাতে ‘লজ্জা বা ভয়ের' তোয়াক্কা না করে বাবা-মা বা শিক্ষকদের সঙ্গে যেকোনো বিষয় শেয়ার করতে পারে, সে সুযোগও সমাজকেই তৈরি করতে হবে৷

পাঠক-দর্শকরাও জোর দিয়েছেন, সমাজের সব ক্ষেত্রে এ নিয়ে জোরালো প্রতিরোধ গড়ে না তুললে প্রতিদিনই এমন ঘটনার খবর আমাদের প্রকাশ করতে হবে৷

এডিকে/কেএম 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন