ধর্ষণ ঠেকাতে বিশেষ বক্ষবন্ধনী | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 13.04.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞান পরিবেশ

ধর্ষণ ঠেকাতে বিশেষ বক্ষবন্ধনী

ধর্ষণ ঠেকাতে ভারতের তিন শিক্ষার্থী নারীদের জন্য অভিনব এক অন্তর্বাস তৈরি করেছেন৷ এটি পরিহিত কেউ আক্রান্ত হলে সঙ্গে সঙ্গে বার্তা চলে যাবে পুলিশ ও পরিবারের সদস্যদের কাছে৷ আর হামলাকারী পাবে উচ্চমাত্রার শক৷

বিশেষ এই বক্ষবন্ধনী উদ্ভাবন করেছেন চেন্নাইয়ের এসআরএম বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন প্রকৌশলী৷ এদের একজন মনীষা মোহন৷ তাঁর সঙ্গে ছিলেন নীলাদ্রি বসু ও রিম্পি ত্রিপাঠি৷

মনীষা মোহন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘এই বক্ষবন্ধনীতে থাকবে একটি ডিভাইস যেটা জিপিএস আর জিএসএম ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত থাকা ছাড়াও তাতে থাকবে শক প্রযুক্তি৷'' ফলে অন্তর্বাসের উপর অস্বাভাবিক চাপ পড়লে সেটা থেকে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বার্তা চলে যাবে পুলিশ আর পরিবারের সদস্যদের কাছে৷ এছাড়া এটি হামলাকারীকে ৩,৮০০ কিলো-ভোল্টের শক দিতে পারবে৷ একবার দুবার নয়, ৮২ বার!

এই অন্তর্বাসের ভেতরের অংশে থাকবে বিশেষ পলিমার৷ ফলে পরিহিত ব্যক্তির শরীরে শক লাগবে না৷

মনীষা মোহন জানান, বাণিজ্যিকভাবে বিশেষ এই বক্ষবন্ধনী উৎপাদনের জন্য অনেকেই তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন৷ তবে এই মুহূর্তে তারা ব্যস্ত কী কাপড় দিয়ে অন্তর্বাসটি তৈরি হবে তা নিয়ে৷ কেননা এটাকে ধোয়ার যোগ্য করতে হবে৷

অন্তর্বাসের দাম যেন সবার হাতের নাগালে থাকে সে চেষ্টা করা হবে বলে জানান মনীষা৷ কারণ তাঁদের উদ্দেশ্য হচ্ছে নারীর সুরক্ষা, মুনাফা অর্জন করা নয়৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন