দ্বিতীয়বারের মতো উইম্বলডন শিরোপা নাদালের | খেলাধুলা | DW | 05.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

দ্বিতীয়বারের মতো উইম্বলডন শিরোপা নাদালের

দ্বিতীয়বারের মতো উইম্বলডন টেনিসের শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন রাফায়েল নাদাল৷ চেক তারকা টমাস বের্ডিচকে হারিয়ে তাঁর এই সাফল্য৷ বের্ডিচকে হারতে হলো ৬-৩, ৭-৫ এবং ৬-৪ গেমে৷

default

উইম্বলডন শিরোপা হাতে নাদাল

নাদালের ক্যারিয়ারে এটি অষ্টম গ্র্যান্ড স্লাম৷ এর আগে ২০০৫, ২০০৮ এবং চলতি বছরে ফরাসি ওপেন টেনিসের শিরোপা অর্জন করেন নাদাল৷ উইম্বলডন শিরোপা পেয়েছিলেন ২০০৮ সালেও৷ আর গত বছর একমাত্র গ্র্যান্ড স্লাম অর্জন ছিল অস্ট্রেলীয় ওপেনে৷ সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত ২৪ বছর বয়সি নাদালের অর্জন ১০,৭৪৫ পয়েন্ট৷ যা এটিপি ব়্যাঙ্কিং-এ দ্বিতীয় স্থানে থাকা নোভাক ইয়োকোভিচের চেয়ে প্রায় চার হাজার পয়েন্ট বেশি৷ সার্বীয় এই তারকার অর্জন ৬,৯০৫ পয়েন্ট৷

এদিকে, ব়্যাঙ্কিং-এ তিন নম্বরে নেমে গেছেন রজার ফেদেরার৷ সুইস এই তারকার ঝুলিতে এখন ৬,৮৮৫ পয়েন্ট৷ ২০০৩ সালের পর এটিই সবচেয়ে খারাপ অবস্থান ফেদেরারের৷ অবশ্য, উইম্বলডন ফাইনালে হারলেও চেক তারকা বের্ডিচ উঠে এসেছেন অষ্টম স্থানে৷ ফলে আগের ১৩তম স্থান থেকে তাঁর উত্থান বেশ লক্ষ্যনীয়৷ বের্ডিচের অর্জন ৩,৮৪৫ পয়েন্ট৷

তবে এপর্যন্ত যেই গ্র্যান্ড স্লাম ভাগ্য জোটেনি নাদালের সেটি হলো ইউএস ওপেন৷ আর সেটির জন্য লড়তে যাচ্ছেন নাদাল মাত্র দু'মাস পরেই৷ তবে ইউএস ওপেন নিয়ে এখনই খুব বেশি কিছু বলতে নারাজ নাদাল৷ কারণ ইউএস ওপেন নিয়ে ভেবে উইম্বলডন জয়ের আনন্দে কিছুমাত্র ব্যাঘাত ঘটাতে চান না৷ ক'টা দিন মাছ ধরে আর আনন্দ-ফূর্তি করে কাটাতে চান তিনি৷ তবে এতোটুকু বলেছেন যে, ‘‘ইউএস ওপেনে লড়াই এবং জয়ের জন্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো বটেই৷''

নাদাল আরো বলেন, এই জয় তাঁর পরবর্তী রণকৌশলে কোন পরিবর্তন ঘটাবে না৷ বরং এটি তাঁর অগ্রগতিকে আরো বেগবান করবে৷ তিনি বলেন, ‘‘আমি প্রতিটি সকালে উঠি, আরো অনুশীলন এবং উন্নতির প্রত্যাশা নিয়ে৷ আরো ভালো একটি খেলা উপহার দেওয়ার জন্য৷'' তবে নাদালের ভক্তরা একটু কষ্টে আছেন তাঁর ডান হাটুর সমস্যা নিয়ে৷ কারণ আগামী ক'টা দিন এই হাটুর থেরাপির জন্য বিশ্রামে থাকতে হচ্ছে এই স্প্যানিশ তারকাকে৷ ফলে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে স্প্যানিশ ডেভিস কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মাঠে থাকছেন না নাদাল৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়