দুতার্তেকে ভয় পান না বেলত্রান | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 22.05.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ফিলিপাইন্স

দুতার্তেকে ভয় পান না বেলত্রান

বিরোধীদের শক্ত হাতে দমনের জন্য আলোচিত ফিলিপাইন্সের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে৷ করোনা নিয়ে ‘মিথ্যা তথ্য' ছড়ানো বন্ধ করতে তার সরকার সম্প্রতি একটি আইন করেছে৷

ঐ আইনে গত ১৯ এপ্রিল মারিয়া ভিক্টোরিয়া বেলত্রানকে আটক করা হয়েছিল৷ তিনি একজন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও শিল্পী৷ ২০২০ সালের ‘ডিডাব্লিউ ফ্রিডম অফ স্পিচ' অ্যওয়ার্ডও পেয়েছেন তিনি৷ ৩ মে এই সম্মাননা দেয়া হয়৷

কোনো ওয়ারেন্ট ছাড়াই বেলত্রানকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল৷ ২১ এপ্রিল তাঁকে ছেড়ে দেয়া হয়৷ তার আগে তাকে ৮০০ ডলার দিতে বাধ্য করা হয়৷

বেলত্রান থাকেন সেবু শহরে৷ আটকের আগে ঐ শহরের মেয়র তাকে গ্রেপ্তারের হুমকি দিয়েছিলেন৷ কারণ, এক ফেসবুক পোস্টে বেলত্রান সেবু শহরকে ‘পুরো সৌরজগতের মধ্য়ে’ করোনা মহামারির এপিসেন্টার হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন৷

সেবু শহরের কাছের একটি পুরো গ্রাম ‘সম্ভাব্য সংক্রমিত' বলে গতমাসে জানিয়েছিল স্থানীয় গণমাধ্যম৷

ফিলিপাইন্সে এখন পর্যন্ত ১৩ হাজারেরও বেশি মানুষের মধ্যে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে৷ মারা গেছেন প্রায় সাড়ে আটশ’ জন৷

করোনা নিয়ে ‘মিথ্যা তথ্য' ছড়ানো বন্ধ করতে সম্প্রতি একটি আইন করেছে দুতার্তে সরকার৷ এতে সামাজিক মাধ্যমসহ অন্যান্য প্লাটফর্ম ব্যবহার করে ‘মিথ্যা তথ্য’ ছড়ানো ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে নিরাপত্তা বাহিনীকে জরুরি ক্ষমতা দেয়া হয়েছে৷

বিভিন্ন মানবাধিকার গোষ্ঠী এই আইনের সমালোচনা করেছে৷ এটি বাকস্বাধীনতার বিরুদ্ধে অভিযান বলে মনে করছে তারা৷ তবে দুতার্তের একজন মুখপাত্র বলছেন, ‘‘বাকস্বাধীনতার একটা সীমা আছে৷''

মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর অভিযোগ, বেলত্রানের গ্রেপ্তার করোনা সংকট মোকাবিলায় সরকারের ব্যর্থতা লুকাতে ক্ষমতার অপব্যবহারের আরেকটি উদাহরণ৷ এর মাধ্যমে সরকারের সমালোচকদের ভয় দেখানো হয়েছে বলে মনে করছে তারা৷

বেলত্রান ডয়চে ভেলেকে জানান, ২০১৬ সালে দুতার্তে ক্ষমতায় আসার আগে তিনি রাজনীতি নিয়ে ভাবতেন না৷ দুতার্তের কথা বলার ভঙ্গি দেখে তিনি প্রথম আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন৷ এরপর মাদকবিরোধী অভিযানে দুতার্তের ‘নিষ্ঠুরতা’ তাকে ক্ষুব্ধ করে তোলে বলে জানান বেলত্রান৷

এরপর থেকে তিনি সামাজিক মাধ্যমে সরকারের কর্মকাণ্ড নিয়ে নিয়মিত পোস্ট দিয়ে আসছেন৷ বেলত্রানের মালিকানাধীন রেস্টুরেন্টের উপর গোয়েন্দারা নিয়মিত নজর রাখছে৷

বেলত্রান অবশ্য এতে দমে যাননি৷ ছাড়া পাওয়ার পর থেকে তিনি প্রতিদিন ফেসবুকে ‘জোক অফ দ্য ডে' নামে বিভিন্ন স্ট্যাটাস দিয়ে আসছেন৷

আনা পি. সান্তোস, ম্যানিলা/জেডএইচ

দেখুন গত বছরের মে মাসের ছবিঘর...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন