দিনশেষে রাজত্ব শ্রীলঙ্কার, বাংলাদেশের এক উইকেট | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 29.04.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

দিনশেষে রাজত্ব শ্রীলঙ্কার, বাংলাদেশের এক উইকেট

দিমুথ করুনারত্নে ও লাহিরু থিরিমান্নে খেলা শুরুর অস্বস্তির সময়টুকু কাটিয়ে দিনশেষে রাজত্ব করলেন৷ বাংলাদেশকে হতাশায় ডুবিয়ে দুজনে গড়লেন রানের পাহাড়ের ভিত৷

শ্রীলঙ্কা আরেকবার সত্য প্রমাণ করল ‘প্রথম ঘণ্টা বোলারদের দাও, বাকি দিনটা নিজের করে নাও' - টেস্ট ক্রিকেটের চিরায়ত সেই কথাটি৷ সেঞ্চুরির পর শেষ সেশনে করুনারত্নে আউট হলেও থিরিমান্নে রইলেন অপরাজিত৷ পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ১ উইকেটে ২৯১ রান৷

লঙ্কান অধিনায়কের এটি দ্বাদশ টেস্ট সেঞ্চুরি৷ থিরিমান্নে অপরাজিত আছেন ১৩১ রানে৷

করুনাররত্নে ও থিরিমান্নের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ২০৯ রান৷ বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির উদ্বোধনী জুটি এটি৷ টানা তিন ইনিংসে সেঞ্চুরিতেও তারা শ্রীলঙ্কার প্রথম, আর টেস্ট ইতিহাসের একাদশ৷

বাংলাদেশের একমাত্র উইকেট শিকারি বোলার অভিষিক্ত বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম৷ দিনের সেরা বোলার সম্ভবত তাসকিন আহমেদ৷ প্রথমে গতি যথারীতি ভালো থাকলেও সতীর্থদের ব্যর্থতায় তার দিন কাটে উইকেটবিহীন৷

প্রথম সেশনে তার বলেই তিনটি সুযোগ আসে৷ কিন্তু শুরুতে বুঝে উঠতে একটু দেরি করায় বলের কাছে সময়মতো যেতে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক৷ আর দুই বল পরই স্লিপে তুলনামূলক সহজ ক্যাচ হাতে জমাতে ব্যর্থ হন নাজমুল হোসেন শান্ত৷ থিরিমান্নের শট গালি দিয়ে বল বাউন্ডারিতে বেরিয়ে গেলে মেহেদী হাসান মিরাজ ঝাঁপিয়েও পারেননি৷ 

বাংলাদেশের শুরুটা আশা জাগানিয়া ছিলো৷ তাসকিন, আবু জায়েদ চৌধুরি, শরিফুল বেশ কবারই বিপাকে ফেলেন দুই লঙ্কান ওপেনারকে৷

কিন্তু প্রথম বিরতির পর থেকেই দিশা হারায় বাংলাদেশের বোলিং, আলগা হয় লঙ্কানদের চাপ৷ দ্বিতীয় সেশনে আরও বেগবান হয় রানের স্রোত৷ এসময় বাংলাদেশের বোলিং-ফিল্ডিং, কিছুই ভালো হয়নি, কার্যকর হয়নি পেস-স্পিন এমন কি শরীরী ভাষাও ক্রমে পড়তে থাকে৷ আর এই সুযোগে আরামে এগোতে থাকেন করুনারত্নে ও থিরিমান্নে৷

লাঞ্চের আগে ২৭ ওভারে আসে ৬৬ রান আর লাঞ্চের পর ৩১ ওভারে ১২২! থিরিমান্নের ফিফটি আসে ১০২ বলে৷ ক্যারিয়ারের তৃতীয় ও বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে পা রাখেন তিনি ২১২ বল খেলে৷  ৬৩ ওভার পেরিয়ে ভাঙে এই জুটি৷

বাংলাদেশের জন্য দিনের প্রথম সাফল্যই হয়ে থাকে শেষ সাফল্য৷

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ৯০ ওভারে ২৯১/১ (করুনারত্নে ১১৮, থিরিমান্নে ১৩১*, ওশাদা ৪০*; আবু জায়েদ ১৬-৩-৪৭-০, তাসকিন ১৭-৩-৬৯-০, মিরাজ ২২-৪-৬৭-০, শরিফুল ১৬-৩-৫২-১,

তাইজুল ১৯-২-৫৬-০) ৷

এনএস/জেডএইচ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়