দলের হুমকিতে পদত্যাগ করলেন দক্ষিণ আফ্রিকার জুমা | বিশ্ব | DW | 15.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

দক্ষিণ আফ্রিকা

দলের হুমকিতে পদত্যাগ করলেন দক্ষিণ আফ্রিকার জুমা

প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার জ্যাকব জুমা৷ পদত্যাগ না করলে বৃহস্পতিবার সংসদে অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে তাঁকে সরিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছিল তাঁর দল এএনসি৷

২০০৯ সালে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নিয়েছিলেন জুমা৷ এরপর গত নয় বছরে তাঁর বিরুদ্ধে বেশ কিছু দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে৷ এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার ‘আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেস’ এএনসির নির্বাহী কমিটির বৈঠকে জুমাকে পদত্যাগের অনুরোধ জানানো হয়৷ কিন্তু তিনি তা করবেন না বলে জানালে তাঁকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে সংসদে ভোটের মাধ্যমে সরিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছিল এএনসি৷ উল্লেখ্য, সংসদে এএনসির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকার কারণে জুমার বিরুদ্ধে ‘নো-কনফিডেন্স’ ভোট পাস করানো দলটির জন্য সহজ ছিল৷

নিজ দলের কাছ থেকে এই হুমকি পাওয়ার পর বুধবার দিনের শেষে প্রেসিডেন্ট হিসেবে পদত্যাগের ঘোষণা দেন জুমা৷

তবে টেলিভিশনে দেয়া প্রায় আধ ঘণ্টার এক বক্তব্যে দলের সিদ্ধান্তের প্রতি তাঁর ক্ষোভ প্রকাশ করেন৷ দলের কাছ থেকে তিনি ‘খুব অন্যায়’ আচরণ পেয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন জুমা৷ ‘‘আমি খারাপ কিছু করেছি কিনা সে ব্যাপারে কোনো প্রমাণ নেই,’’ দাবি তাঁর৷

এদিকে, জুমা পদত্যাগ করায় ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন এএনসির সভাপতি সিরিল রামাফোসা৷ গত ডিসেম্বরে তিনি জুমাকে হারিয়ে দলের সভাপতি নির্বাচিত হন৷

Südafrika - neuer Präsident Cyril Ramaphosa

সিরিল রামাফোসা

বৃহস্পতিবার সংসদে নির্বাচনের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট হিসেবে রামাফোসার পুরো দায়িত্ব পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ আগামী বছর দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা৷

জুমার বিরুদ্ধে অভিযোগ

একটি অভিযোগ বলছে, ক্ষমতায় যাওয়ার আগে জুমা ৭৮৩টি ‘পেমেন্ট’ গ্রহণ করেছেন, যেগুলো একটি অস্ত্র চুক্তির সঙ্গে সম্পর্কিত৷

জুমার বিরুদ্ধে আরেকটি অভিযোগের সঙ্গে যুক্ত ভারতে জন্মগ্রহণকারী গুপ্তা পরিবার৷ জুমার সঙ্গে সম্পর্ককে কাজে লাগিয়ে এই পরিবার অন্যায়ভাবে সরকারের অনেক লাভজনক ব্যবসা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ আছে৷

বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকার পুলিশ এই পরিবারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালায়৷ এই সময় গুপ্তা পরিবারের এক সদস্যসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানা গেছে৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন