দক্ষিণ সুদানে শান্তি ফেরাতে আলোচনা শুরু | বিশ্ব | DW | 02.01.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

দক্ষিণ সুদানে শান্তি ফেরাতে আলোচনা শুরু

বিশ্বের সবচেয়ে নতুন দেশ দক্ষিণ সুদান৷ গত প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে সেখানকার পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত৷ জাতিসংঘের হিসেবে দক্ষিণ সুদানে সহিংসতায় হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছে৷ ঘর ছাড়া হয়েছে প্রায় দুই লাখ৷

সহিংসতার শুরু ডিসেম্বরের ১৫ তারিখ৷ সেসময় প্রেসিডেন্ট সালভা কির একসময় তাঁর অধীনে ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকা রিক মাচারের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের অভিযোগ এনেছিলেন৷ রিক মাচার অবশ্য সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷

সমস্যার সমাধানে ইথিওপিয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা শুরু হওয়ার কথা৷ এ লক্ষ্যে সরকার ও বিদ্রোহীদের একটি করে প্রতিনিধি দল আদ্দিস আবাবায় পৌঁছেছেন৷ আলোচনার একটা অন্যতম উদ্দেশ্য হলো সাময়িক যুদ্ধবিরতি৷

ইথিওপিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, এখন আপাতত অনানুষ্ঠানিক কথাবার্তা হবে৷ আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু হতে কয়েকদিন লেগে যেতে পারে৷ বিদ্রোহীদের নেতা রিক মাচারও জানিয়েছেন, তিনি কোনো এক সময় আলোচনায় যোগ দিতে পারেন৷

Konflikt im Südsudan Regierungssoldat 30.12.2013

সুদানের বিদ্রোহীরা...

এদিকে প্রেসিডেন্ট সালভা কির স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন, বিদ্রোহীদের সঙ্গে ক্ষমতার ভাগাভাগিতে যাবেন না তিনি৷ ফলে আলোচনার সফলতা নিয়ে আশঙ্কা করাই যেতে পারে৷

তবে দুই পক্ষ যে আলোচনা করতে প্রতিনিধি পাঠিয়েছে তাতেই খুশি দক্ষিণ সুদান বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত হিলডে জনসন৷

জরুরি অবস্থা

দক্ষিণ সুদানের ১০টি রাজ্যের মধ্যে দুটিতে– ইউনিটি ও জঙলেই– জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে সরকার৷ অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সরকার এই ঘোষণা দেয়৷ ঐ দুটি রাজ্যে দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে৷ এছাড়া গত দুই সপ্তাহে তিনবার নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ বদল হওয়া ‘বোর' রাজ্যের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে সরকার আরও বেশি করে সেখানে সৈন্য পাঠাচ্ছে৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন