দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশে বন্যায় নিহত ২৪৫ | বিশ্ব | DW | 15.08.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

দক্ষিণ এশিয়ার তিন দেশে বন্যায় নিহত ২৪৫

বাংলাদেশ, ভারত এবং নেপালে বন্যায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ২৪৫ ব্যক্তি৷ তিনদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পানি ছড়িয়ে পড়ায় বেশ কয়েক হাজার মানুষ ইতোমধ্যে গৃহহীন হয়েছেন৷ বন্যার প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

তিনদিন ধরে চলা অবিরত বর্ষার কারণে সৃষ্ট বন্যায় নেপালে অন্তত ১১০ ব্যক্তি, ভারতে ১০৮ এবং বাংলাদেশে কমপক্ষে ২৭ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে৷ ভারতের বন্যা প্রবণ এলাকা আসামের জরুরি ক্যাম্পে বর্তমানে দু'লাখের মতো মানুষ বসবাস করছেন৷ এছাড়া বিহারে ১৫ হাজার মানুষ গৃহহীন হয়েছেন৷ ভারতের এই রাজ্যের সঙ্গে নেপালের সীমান্ত রয়েছে৷ সেখানে অন্ততটি সাতটি নদীতে পানি বিপদসীমায় রয়েছে৷

এদিকে, ভারতের রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ট্রেন চলাচল বুধবার পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছে, কেননা কোনো কোনো স্থানে ট্রেন লাইন পুরোপুরি পানির নীচে তলিয়ে গেছে৷

নেপালেও বেশ কিছু অঞ্চল এখনো পানির নীচে রয়েছে সেখানে অবস্থানরত বার্তাসংস্থা এএফপি-র একজন আলোকচিত্রী নিশ্চিত করেছেন৷ সেদেশের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলে ৪৮,০০০ বাড়ি পুরোপুরি পানির নীচে তলিয়ে গেছে৷ বন্যা উপদ্রুত প্রত্যন্ত অঞ্চলে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনায় বেগ পেতে হচ্ছে৷ আর রেডক্রস সতর্ক করে জানিয়েছে, বন্যা পরবর্তী সময়ে বিশুদ্ধ পানীয় জল এবং খাবারের অভাবে সেখানে মানবিক সংকট সৃষ্টি হতে পারে৷

নেপালে, ভারত থেকে বন্যার পানি ধেয়ে আসায়  বাংলাদেশে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতির আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ দেশটির উত্তরে বিভিন্ন বাঁধ আরো মজবুত করতে এবং অস্থায়ী বাঁধ তৈরিতে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে৷ উত্তরাঞ্চলে সাতলাখে মতো মানুষ বর্তমানে পানিবন্দি আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা৷ এছাড়া রাজধানী ঢাকাতেও বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

এআই/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন