তুরস্ক হয়ে উদ্বাস্তুর ঢল ইউরোপে | বিশ্ব | DW | 17.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

তুরস্ক

তুরস্ক হয়ে উদ্বাস্তুর ঢল ইউরোপে

ইউরোপীয় ইউনিয়নের গোপন রিপোর্ট বলছে, তুরস্ক হয়ে উদ্বাস্তু ও অভিবাসীদের ইউরোপে আসার ঢল নেমেছে৷ গত বছরের তুলনায় ২০১৯ এ সংখ্যাটা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে৷ এর ফলে ইইউ ও তুরস্কর মধ্যে উদ্বাস্তু চুক্তি নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে৷

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত তুরস্ক হয়ে ৭০,০০২ উদ্বাস্তু ইউরোপে এসেছে৷ ২০১৮র তুলনায় সংখ্যাটা ৪৬ শতাংশ বেশি৷ ইইউ এর গোপন রিপোর্ট বলছে, এর মধ্যে ৬৮ হাজার লোক গ্রিসে গিয়েছেন এবং সেখানে এমনিতেই উপচে পড়া উদ্বাস্তু শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন৷ বাকিরা গিয়েছেন বুলগেরিয়া, ইটালি ও সাইপ্রাসে৷

হালফিল প্রবণতা হল, ইউরোপে অধিকাংশ উদ্বাস্তু আসছেন আফগানিস্তান থেকে৷ মোট উদ্বাস্তুর তিরিশ শতাংশই আফগানিস্তানের লোক৷ এ ছাড়া সিরিয়া থেকে এসেছেন ১৪ শতাংশ, পাকিস্তান থেকে ৯.৫ শতাংশ, ইরাক থেকে ৮ শতাংশ ও তুরস্ক থেকে ৫ শতাংশ৷ 

ঘটনা হল, গ্রিসের এজিয়ান দ্বীপপুঞ্জের উদ্বাস্তু শিবিরে এখন তিল ধারনের জায়গা নেই৷ সেখানে খাবার, ওষুধ, পোশাক সবকিছুই বাড়ন্ত৷ তাই গ্রিস সরকার তাদের মূল ভূখণ্ডে নিয়ে আসছে৷ 

ভিডিও দেখুন 01:26

ইউরোপের দ্বারপ্রান্তে এসেও তমসাচ্ছন্ন যাঁদের জীবন

কিন্তু উদ্বাস্তুদের এই ঢল তুরস্কের সঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের চুক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে৷ এই চুক্তি অনুসারে, তুরস্কের মধ্যে দিয়ে অভিবাসী বা উদ্বাস্তুরা  ইউরোপে আসতে চাইলে তাদের বাধা দেওয়া হবে৷ বিনিময়ে তুরস্ক ৬০০ কোটি ইউরো পাবে৷ সিরিয়া-সঙ্কট দেখা দেওয়ার পর ইইউ এই ব্যবস্থা নিয়েছিল৷ এখন অবশ্য তুরস্ক পাল্টা ইইউ-র বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেছে, তাদের আরও অর্থ লাগবে৷ ইইউ র রিপোর্ট বলছে, 'অনেক সময়ই দেখা যাচ্ছে, তুরস্কের নজরদারি জলযানগুলি উদ্বাস্তুদের নৌকা থামানো দূরস্থান, বরং সেগুলিকে গ্রিসের জলসীমায় পাঠিয়ে দিচ্ছে৷’

ফলে সমস্যা বাড়ছে৷ রিপোর্ট এটাও জানাচ্ছে, 'কিছু উদ্বাস্তু গ্রিসে থেকে যাচ্ছে৷ কিছু আবার আলবেনিয়া সীমান্তে যাওয়ার চেষ্টা করছে৷ সেখান থেকে চোরাচালানকারীদের সাহায্যে তারা অস্ট্রিয়া ও জার্মানিতে ঢোকার চেষ্টা করছে৷’

চেজ উইন্টার/জিএইচ/এসজি

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন