‘তুমি কি আমার বিধবা হবে?′ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 13.06.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘তুমি কি আমার বিধবা হবে?'

জীবন শুরু হয় কান্না দিয়ে, শেষেও থাকে কান্না৷ তবে কিছু মানুষ সেসব রীতিনীতির বাইরে৷ তেমনই একজন মানুষ ছিলেন স্কটিশ লেখক ইয়ান ব্যাংকস, যিনি সম্প্রতি ৫৯ বছর বয়সে ক্যানসারে মারা গেলেন৷

ইয়ান ব্যাংকস ছিলেন স্কটল্যান্ডের মানুষ, সারা জীবন সেখানেই কাটিয়েছেন৷ ইংরিজি সাহিত্যের ছাত্র, ১৯৮৪ সালে প্রকাশিত তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘‘দ্য ওয়্যাস্প ফ্যাকটরি'' তাঁকে বিশ্বখ্যাতি এনে দেয়৷ সে এক অদ্ভুত কাহিনি: এক স্কটিশ টিনেজার তার দশ বছর বয়স হওয়ার আগেই নিজের পরিবারের তিনজন শিশুকে হত্যা করেছে৷ অর্থাৎ গোড়া থেকেই ব্যাংকস-এর আশ্চর্য কিন্তু গা ছম ছম করা কল্পনাশক্তির স্বাক্ষর বহন করছিল এই উপন্যাসটি৷

ইয়ান ব্যাংকসকে সায়েন্স ফিকশন লেখক বললে কম বলা হয়, কিন্তু ভুল বলা হয় না৷ তার প্রমাণ তাঁর ‘‘কালচার'' সিরিজ৷ সেই সঙ্গে ছিল তাঁর গথিক বা ভূতুড়ে হিউমার, বাংলায় যাকে বলে হাস্যরস৷ অসম্ভব তাড়াতাড়ি বই লিখতে পারতেন ব্যাংকস: লেখক জীবনে দু'ডজনের বেশি বই লিখেছেন৷ তাঁর শেষ উপন্যাস ‘‘দ্য কোয়্যারি''-র একটি কপি তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয় মৃত্যুর মাত্র তিন সপ্তাহ আগে৷

Holi Fest Vindavan, Indien 2013

বান্ধবীকে প্রশ্ন: ‘‘তুমি কি আমার বিধবা হবে?''

প্রকাশকরা বইটির প্রকাশনা এগিয়ে এনেছিলেন, কেননা ব্যাংকস গত এপ্রিল মাসেই তাঁর ওয়েবসাইটে ঘোষণা করেন যে, তিনি আর মাত্র কয়েক মাস বাঁচবেন৷ সে ঘোষণাও ছিল ব্যাংকস-সুলভ: ‘‘সরকারিভাবে আমার অবস্থা বিশেষ ভালো নয়৷'' ব্যাংকস নিজেই জানিয়ে দিচ্ছিলেন যে, ক্যানসার তাঁর গল ব্লাডার থেকে লিভার ও প্যানক্রিয়াসে ছড়িয়ে পড়েছে৷

আরো বড় কথা, জীবন শেষ হতে চলেছে জেনে ব্যাংকস তাঁর বান্ধবী অ্যাডেল হার্টলেকে প্রশ্ন করেন: ‘‘তুমি কি আমার বিধবা হয়ে আমাকে সম্মানিত করবে?'' হার্টলে স্বয়ং লেখিকা, এছাড়া তিনি একটি হরর ফিল্ম ফেস্টিভাল চালান৷ এমনই এক মহিলা যিনি এর পরে একটি ব্লগ পোস্ট স্বাক্ষর করেছিলেন এই উপাধি নিয়ে: ‘‘চিফ উইডো-ইন-ওয়েটিং'', অর্থাৎ ‘প্রধান হবু বিধবা'৷

হার্টলে সম্মত হলে দু'জনে হনিমুন করতে যান ভেনিস ও প্যারিসে৷ কিন্তু স্কটল্যান্ডে ফেরার পরই ব্যাংকসকে এডিনবরার হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়৷

অনেক মানুষকে কাঁদিয়ে যাবার পরিবর্তে অনেক মানুষকে হাসিয়ে যাওয়াটায় ভুলটা কোথায়?

তবু যেন চোখে এক ফোঁটা পানি আসে...

এসি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন